সাংবাদিক খান মাইনউদ্দীনের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির নালিশী অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। ঝালকাঠি জেলার নলছিটি উপজেলার উত্তর জুরকাঠী আজিজিয়া দাখিল মাদ্রাসায় অবৈধ গোপন নিয়োগের প্রতিবাদ করায় জাতীয় দৈনিক কালবেলা পত্রিকার বরিশাল ব্যুরো, বাংলাদেশ টুডে ফটো সাংবাদিক খান মাইনউদ্দীনের বিরুদ্ধে মিথ্যা চাঁদাবাজির নালিশী অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। ওই মাদ্রাসায় অবৈধ নিয়োগ প্রাপ্ত দপ্তরি মানিক তালুকদার বাদী হয়ে ঝালকাঠির সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে গত ১০ সেপ্টেম্বর এমপি-১৯৯/১৯(নল) নালিশী অভিযোগ দায়ের করে।

আদালত নলছিটি থানাকে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেন। জানা গেছে, গত বছর ১২ মার্চ ওই মাদ্রাসায় দপ্তরি নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি প্রদান করা হলে সাংবাদিক খান মাইনউদ্দীনের ভগ্নিপতি আবেদন করেন। দীর্ঘ দিন অতিবাহিত হলেও ওই মাদ্রাসায় আনুষ্ঠানিকভাবে দপ্তরি নিয়োগ দেয়া হয়নি। সম্প্রতি ওই এলাকার মানিক তালুকদার নিজেকে দপ্তরি পরিচয় দিয়ে মাদ্রাসায় যাতায়াত করতে থাকলে বিষয়টি জানাজানি হয়। এতে সাংবাদিক খান মাইনউদ্দীন মাদ্রাসার সভাপতি ও সুপারের কাছে গোপন নিয়োগের প্রতিবাদ করেন। এবং ওই মাদ্রাসার সুপার কর্তৃক অবৈধ নিয়োগের টাকা লেনদেনের বক্তব্য সম্বলিত গোপন ভিডিও রেকর্ড ফেসবুকে পোস্ট করেন। যা ভাইরাল হলে নলছিটি উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আনোয়ার আজিম সাংবাদিকদের কাছে ওই অবৈধ নিয়োগ বাতিলের আশ্বাস দিয়ে ভিডিওটি ডিলেট করতে অনুরোধ করেন। এরই মধ্যে অবৈধ নিয়োগ পাওয়া মানিক তালুকদার আদালতে নালিশী অভিযোগ করেন।

নালিশী অভিযোগে মানিক তালুকদার উল্লেখ করেন, সাংবাদিক খান মাইনউদ্দীন গত ৭ সেপ্টেম্বর সকাল ৯টায় তার বাড়িতে গিয়ে মা,স্ত্রী ও কন্যার, সামনে ৫০ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করেন। এদিকে সাংবাদিক খান মাইনউদ্দীনের বিরুদ্ধে মিথ্যা চাঁদাবাজির অভিযোগ দায়ের করায় সাংবাদিক সমিতি তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন। পাশাপাশি ওই মাদ্রাসায় অবৈধ নিয়োগ ও নিয়োগ বাণিজ্যের সাথে জড়িতদের দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তি দাবি করেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here