ফিলিস্তিনে টানা ১১ দিনের মতো ইসরায়েলি সামরিক আগ্রাসনের মধ্যে ইসরায়েলে আরও ৭৩৫ মিলিয়ন ডলারের বিপুল অস্ত্রের বিক্রি ঠেকাতে মার্কিন কংগ্রেসের নিম্নকক্ষ প্রতিনিধি পরিষদ ও উচ্চকক্ষ সিনেটের উদারপন্থী আইনপ্রণেতারা চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন।

যুক্তরাষ্ট্রের বর্ষীয়ান সিনেটর বার্নি স্যান্ডার্স ইসরায়েলের কাছে এই অস্ত্র বিক্রি বন্ধে সিনেটে একটি প্রস্তাবনা উত্থাপনের প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছেন বলে দেশটির প্রভাবশালী দৈনিক ওয়াশিংটন পোস্টের বরাতে বৃহস্পতিবার জানিয়েছে ব্রিটিশ সম্প্রচারমাধ্যম বিবিসি।

সিনেটর বার্নি স্যান্ডার্স বলেছেন, ‌‌‘এমন এক মুহুর্তে যখন আমেরিকার তৈরি বোমা গোটা গাজাকে ধ্বংসস্তুপে পরিণত করছে এবং নারী ও শিশুদের হত্যা করছে, তখন আমরা কংগ্রেসে কোনো ধরনের বিতর্ক ছাড়া আরও বিপুল পরিমাণ অস্ত্র বিক্রি করতে দিতে পারি না।’

স্যান্ডার্সের মতো ফিলিস্তিনে ইসরায়েলের সামরিক আগ্রাসনের বিরোধী কংগ্রেসের নিম্নকক্ষ প্রতিনিধি পরিষদের উদারপন্থী আইনপ্রণেতা আলেকজান্দ্রা ওকাসিও কর্তেজ ইসরায়েলের কাছে এই অস্ত্র বিক্রি বন্ধে গত বুধবার একই রকম একটি প্রস্তাবনা উত্থাপন করেছেন।

 

তবে ইসরায়েলে আমেরিকান অস্ত্র বিক্রি বন্ধে তাদের ওই প্রচেষ্টা সম্ভবত সাফল্যের মুখ দেখবে না। কারণ কংগ্রেসের উচ্চকক্ষ সিনেটের পররাষ্ট্র সম্পর্ক বিষয়ক কমিটি ও নিম্নকক্ষ প্রতিনিধি পরিষদের পররাষ্ট্র সম্পর্ক বিষয়ক কমিটির চেয়ারম্যানে এতে অনুমোদন দিয়েছেন।

 

এদিকে ফিলিস্তিনের গাজায় চলমান হামলা বন্ধে অতিসত্বর যুদ্ধবিরতির আহ্বান জানিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের ২৮ জন সিনেটর। গত সোমবার ডেমোক্র্যাট সিনেটর জন অসোফের নেতৃত্বে সিনেটররা এক যৌথ বিবৃতিতে এই আহ্বান জানান।

নিজের টুইটার অ্যাকাউন্টে যৌথ বিবৃতি তুলে ধরেন সিনেটর জন অসোফ। যৌথ বিবৃতিতে তারা বলেন, ‘ইসরায়েল ও ফিলিস্তিনি ভূখণ্ডে সংঘাত যাতে আর না বাড়ে এবং বেসামরিক মানুষের আর প্রাণহানি না ঘটে, এ জন্য অতিসত্বর আমরা যুদ্ধবিরতির আহ্বান জানাচ্ছি।’

জর্জিয়ার সিনেটর জন অসোফের নেতৃত্বে এই সিনেটরদের মধ্যে আছেন যুক্তরাষ্ট্রের বর্ষীয়ান রাজনীতিবিদ বার্নি স্যান্ডার্সও। শুরু থেকেই তিনি ফিলিস্তিনিদের ওপর হামলায় ইসরায়েলের নেতানিয়াহু সরকারকে সমর্থন বন্ধের দাবি জানিয়ে আসছেন।

 

ইসরায়েল ও ফিলিস্তিনে চলমান সংঘাত বন্ধে কার্যকর পদক্ষেপ নিতে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়ে দেশটির নিম্নকক্ষ প্রতিনিধি পরিষদের ১৩০ জন সদস্য শিগগিরই ইসরায়েল ও গাজার শাসক হামাসকে যুদ্ধবিরতির তাগিদ দিয়েছেন।

যৌথ বিবৃতি দেওয়া এসব আইনপ্রণেতার সবাই বাইডেনের দল ডেমোক্র্যাটিক পার্টি সদস্য। বিবদমান উভয়পক্ষকে আলোচনার টেবিলে বসে সমস্যার সমাধানের পথ বাতলে ইসরায়েল-ফিলিস্তিন সংঘাত বন্ধে প্রেসিডেন্ট বাইডেনের ভূমিকার সমালোচনাও করেছেন তারা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here