বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় বাস্তবায়ন কমিটির আশ্বাসে চলমান আমরণ অনশন স্থগিত করেছেন আন্দোলনরত শিক্ষক শিক্ষার্থীরা। শুক্রবার সন্ধ্যা সোয়া ৬টার দিকে আন্দোলনরতদের জুস খাইয়ে অনশন ভাঙিয়েছেন এই কমিটির সদস্যরা।

তবে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় বাস্তবায়ন কমিটির দেওয়া আশ্বাস যথাসময়ে পূরণ না হলে ফের অনশনে বসার ঘোষণা দিয়েছেন শিক্ষক শিক্ষার্থীরা। এমনকি এই অনশনে শিক্ষার্থীদের সাথে তারাও বসার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন বলে জানা গেছে।

আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের প্রতিনিধি শফিকুল ইসলাম জানিয়েছেন, অনশনের তৃতীয় দিনে শুক্রবার বিকেলে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় বাস্তবায়ন কমিটির সভাপতি শিক্ষাবিদ প্রফেসর মো. হানিফসহ ১০ থেকে ১৫ জন ক্যাম্পাসে আসেন। এসময় তিনি আশ্বাস দিয়েছেন আগামী দুইদিন অর্থাৎ সোমবারের মধ্যে ভিসিকে অপসারণ নতুবা পূর্ণ মেয়াদে ছুটিতে যেতে বাধ্য করা হবে। তা না হলে সোমবার থেকে শিক্ষার্থীদের সাথে তারাও অনশনে অংশ নিয়ে ভিসি ড. এসএম ইমামুল হকের পদত্যাগ চাইবেন। এমন প্রতিশ্রুতি পেয়ে শিক্ষার্থীরা সম্মত হলে প্রফেসর হানিফ নিজ হাতে তাদের জুস খাইয়ে অনশন ভেঙেছেন।

এসময় বরিশাল শিক্ষাবোর্ডের চেয়ারম্যান মো. ইউনুস, শহরের ইসলামিয়া কলেজ অধ্যাপক মহশিন উল ইসলাম হাবুল ও সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব অ্যাডভোকেট এসএম ইকবালসহ আরও অনেকে।

শিক্ষার্থীদের ‘রাজাকারের বাচ্চা’ বলে গালি দেওয়ায় গত ২৬ মার্চ থেকে ভিসির পদত্যাগের দাবিকে আন্দোলন কর্মসূচি পালন করছেন শিক্ষার্থীরা। পরবর্তীতে তাদের সঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সমিতিসহ শিক্ষকদের একাংশ ও কর্মচারীরা একাত্মতা প্রকাশ করেন। ধারাবাহিকতায় ২৪ এপ্রিল থেকে শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের ব্যানারে ভিসির অপসারণ দাবিতে আমরণ অনশন কর্মসূচি পালন করে আসছিল শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here