ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে পুড়ে ছাই হচ্ছে পৃথিবীর সবচেয়ে বড় চিরহরিৎ বন আমাজন। গত তিন সপ্তাহে বনটির প্রায় আট হাজার বর্গকিলোমিটার এলাকা আগুনে পুড়ে গেছে। আনুমানিক ৫ শতাংশেরও কম অংশ থাকা বলিভিয়া আগুন নেভাতে বিমান ভাড়া করে পানি ঢালছে মহাবন আমাজনে।

আন্তর্জাতিক বেশকিছু সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, আগুন নেভাতে বোয়িংয়ের একটি সুপার ট্যাংকার বিমানের মাধ্যমে গতকাল শুক্রবার থেকে আমাজনে পানি ঢালতে শুরু করেছে বলিভিয়া সরকার। একটি মার্কিন কোম্পানির কাছ থেকে বিমানটি ভাড়া করেছে তারা।

বলিভিয়ার ভাইস প্রেসিডেন্ট আলভারো গার্সিয়া বলেছেন, ‘মার্কিন কোম্পানির কাছ থেকে ভাড়া করা একটি বিমানে আমাজনের আগুন নেভানোর চেষ্টা করছি আমরা। সুপার ট্যাংকার ওই বিমানটি ১ লাখ ৫০ হাজার লিটার অর্থাৎ ৪০ হাজার গ্যালন পানি বহনে সক্ষম।’

 

বলিভিয়া সরকারের জরুরি টাস্কফোর্সের প্রধান হলেন দেশটির ভাইস প্রেসিডেন্ট আলভারো গার্সিয়া। অভিযোগ আছে, দক্ষিণ আমেরিকার এই দেশটির কৃষকরাও মাটির উর্বরতা বৃদ্ধির জন্য ঐতিহ্যগতভাবে আগুন লাগানোর কাজটি করে থাকে।

সুপার ট্যাংকারটি আমাজনের অগ্নিনির্বাপণের কাজ শুরু করার আগে দেশটির বিমান বাহিনীর বিমান গিয়ে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা চিহ্নিত করে আসে। তারপরই গতকাল শুক্রবার থেকে পানি ঢালা শুরু হয়। সুপার ট্যাংকার বিমানটির সঙ্গে রয়েছে আরও তিনটি অতিরিক্ত হেলিকপ্টার ও ৫০০ অগ্নিনির্বাপণ কর্মী।

বলিভিয়ার প্রতিরক্ষামন্ত্রী জাভিয়ের জাবালেতা বলেছেন, ‘সান্তা ক্রুজ প্রদেশের উত্তরাঞ্চলে চারটি আকাশযান ভয়াবহ আগুনে শিকার আমাজনের ছয়টি স্থান চিহ্নিত করে পানি ঢালার কাজ করছে। প্রতিবেশী প্যারাগুয়ে ও ব্রাজিলকে অগ্নিনির্বাপণের জন্য পদক্ষেপ নেয়ার আহ্বান জানিয়েছে দেশটি।

ব্রাজিলের অধীনে বনটির ৬০ শতাংশ থাকলেও যথাযথ পদক্ষেপ নিচ্ছে না দেশটি। দেশটির প্রেসিডেন্ট জায়ের বোলসোনারো বলেছেন, বিভিন্ন এনজিও আমাজনে আগুন দিয়েছে। আমাজনের ১৩ শতাংশ পেরু এবং ১০ শতাংশ অবস্থিত কলম্বিয়ায়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here