বরিশাল সিটি করপোরেশনের মেয়র ও মহানগর আওয়ামীলীগের যুগ্ম সম্পাদক সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহ বলেছেন, নেতাভিত্তিক রাজনীতি পরিহার করে দলের জন্য স্বচ্ছ রাজনীতি করতে হবে সবাইকে। বেইমানদের বিরুদ্ধে সতর্ক থাকতে হবে। এমন অনেকে রয়েছেন যারা দলের মধ্যে বিভেদ সৃষ্টির পায়তারা চালাচ্ছে, তাদের বিরুদ্ধে সজাগ থাকতে হবে।

আগামী ২০ ও ২১ ডিসেম্বর বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের জাতীয় সম্মেলন উপলক্ষে শনিবার (১২ অক্টোবর) দুপুরে বরিশাল নগরের সার্কিট হাউজে এ বর্ধিত সভায় এসব কথা বলেন তিনি।

এসময় তিনি আরো বলেন, দলের মধ্যে কোন বিভেদ নাই, আমাদের একটাই গ্রুপ সেটা হচ্ছে শেখ হাসিনার গ্রুপ। বেইমানদের কোন জায়গা দলের ভেতরে হবে না। যারা শুরুতে ছাত্রলীগ ও যুবলীগ করে নাই, অন্যদল থেকে আওয়ামীলীগে এসেছেন তাদের গুরুত্বপূর্ণ পদের দায়িত্ব দেয়া যাবে না।

মেয়র আরো বলেন, আমি গুটি কয়েক লোকের স্বার্থ রক্ষায় শপথ নেইনি, আমি প্রধানমন্ত্রী আর দেশের স্বার্থ রক্ষায় শপথ নিয়েছি। যদি একটা লোকও আমার সমর্থন করে তাতেও আমি আওয়ামীলীগ করবো, দেশ ও মানুষের স্বার্থে কাজ করবো। আর বিনা চিকিৎসায় কোন নেতা-কর্মীকে মারা যেতে দোবা না।

এসময় নেতৃবৃন্দের উদ্দেশ্যে মেয়র বলেন, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে দেশে চলমান অভিযানে আমাদের সর্বাত্মক সহযোগীতা করতে হবে। দুর্নিতীকে প্রশ্রয় দেয়া যাবে না। তাছাড়া বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের হলে প্রশাসনের পক্ষ থেকে যদি তল্লাশি চালানো হয়ে তাতেও আমরা সর্বাত্মক সহযোগীতা করবো। দলের নাম ভাঙ্গিয়ে কাউকে কোন অপকর্ম করতে দেয়া হবে না।

বরিশাল মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট গোলাম আব্বাছ চৌধুরী দুলালের সভাপতিত্বে সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট তালুকদার মোঃ ইউনুস, মহানগর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট কে এম জাহাঙ্গীরসহ মহানগর ও ওয়ার্ড আওমীলীগের নেতৃবৃন্দ।

সভায় আগামী ২০ অক্টোবর থেকে প্রতিটি ওয়ার্ডে পর্যায়ক্রমে সম্মেলন করার সিদ্ধান্ত অনুমোদন হয়। যে সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ১৫ নভেম্বর ওয়ার্ড পর্যায়ের এ সম্মেলন শেষ হবে। সম্মেলন মনিটরিং এর জন্য ৭ সদস্যের একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। যেখানে মহানগর আওয়ামীলীগের দপ্তর সম্পাদক হুমায়ুন কবির, সদস্য রফিকুল ইসলাম খোকন,শিল্প ও বানিজ্য সম্পাদক নিরব হোসেন টুটুল, তথ্য ও গবেষনা সম্পাদক হাসান মাহমুদ বাবু, সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ নূর উদ্দিন শাহিন, সহ-দফতর সম্পাদক কাজী মুনির উদ্দিন তারিক ও প্রচার সম্পাদক অ্যাডভোকেট গোলাম সরোয়ার রাজিব রয়েছেন।

এদিকে সভায় দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগ এনে মহানগর আওয়ামীলীগের যুব ও ক্রিড়া বিষয়ক সম্পাদক এসএম জাকির হোসেনকে কমিটি থেকে বহিষ্কারের জন্য কেন্দ্রে সুপারিশ পাঠানোর সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here