বছর খানেক পূর্বে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার মনিরুল ইসলামের আপত্তিকর ভিডিও ক্লিপ নিয়ে তোলপাড় সৃষ্টি হয়। যার কারনে চাকরি হারাতে হয় তাকে।

তাছাড়া সম্প্রতি সময়ে জামালপুর জেলা প্রশাসনের গোপন ভিডিও ভাইরাল এজন্য ওএসডি হন তিনি। এ ঘটনার রেশ না কাটতেই বেরিয়ে ফাস হয়েছে বরিশালের মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ও উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যানের অন্তরঙ্গ মুহুর্তের ভিডিও। এ দুয়ে মিলে চলছে আলোচনার ঝড়।

ঠিক সেই মুহুর্তে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মকর্তা ফিজিকাল ইন্সট্রাক্টর (ক্রিড়া) মো. নূরুল ইসলামের এক নারীর সাথে কথোপকথনের দুটি অডিও ক্লিপ ছড়িয়ে পড়েছে। যা নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নতুন করে শুরু হয়েছে আলোচনা-সমালচনা।

ক্যাম্পাসের চায়ের দোকানে, বন্ধুদের আড্ডায়, আবাসিক হল থেকে শুরু করে সর্বত্ত শোনা যাচ্ছে ববি কর্মকর্তার অডিও রেকর্ড ফাসের আলোচনা। থেমে নেই শিক্ষক এবং কর্মকর্তা-কর্মচারীরাও। ফলে বর্তমানে এই ঘটনাটি “টক অফ দ্য ক্যাম্পাসে” পরিনত হয়েছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্র ও ১ মিনিট ৫৭ সেকেন্ড এর ওই অডিও ক্লিপ থেকে জানাগেছে, ‘ববি কর্মকর্তা নূর ইসলাম বিবাহ বিচ্ছেদ হওয়ার পরেও তার সাবেক স্ত্রীকে শারীরিক মিলনের অনৈতিক প্রস্তাব দেন। এতে রাজি না হওয়ায় তালাক দেয়া ওই স্ত্রীকে এসিড মেরে পুড়িয়ে গলিয়ে ক্যাপচার করে ব্যাটারি বানিয়ে রাখার হুমকি দেন ওই কর্মকর্তা।

তাছাড়া ৪ মিনিট ২৯ সেকেন্ড এর দ্বিতীয় রেকর্ডে একাধিক নারীর সঙ্গে ববি কর্মকর্তা নূরুল ইসলামের প্রেমের সম্পর্ক থাকার চাঞ্চল্যকর তথ্য বেরিয়ে আসে। তবে এ বিষয়ে ববির ওই কর্মকর্তা ও তার সাবেক স্ত্রী’র বক্তব্য জানা যায়নি।

তবে বিশ্বস্ত সূত্র জানিয়েছে, ‘প্রথম বিয়ের ঘটনা গোপন রেখে ২য় বিয়ে করেন নূর ইসলাম এবং এই বিয়ে বিচ্ছেদ হওয়ার পর সাবেক স্ত্রীকে ইমোশনাল ব্ল্যাকমেইলের চেষ্টা করেন ববি কর্মকর্তা। যা মোবাইল ফোনে রেকর্ড করেন সাবেক ওই স্ত্রী। তার মাধ্যমেই ভিডিও ক্লিপ ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়েছে বলে মনে করছেন অনেকে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here