মৌলভীবাজারের কুলাউড়ার বরমচাল রেলক্রসিং এলাকায় সিলেট থেকে ঢাকাগামী উপবন এক্সপ্রেসের ৪টি ব‌গি লাইনচ্যুত হয়ে খালে ছিটকে পড়েছে। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত ৭ জন নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। এদের মধ্যে তিনজন নারী ও চারজন পুরুষ।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, রোববার রাত ১২টার দিকে কুলাউড়ার বরমচাল স্টেশনের পাশে ঢাকাগামী উপবনের বগি ছিটকে পড়ে। রাতে সিলেট স্টেশন থেকে যাত্রী নিয়ে ঢাকার উদ্দেশ্য ওই ট্রেনটি ছেড়ে যায়।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রাশেদুল ইসলাম  জানান, ট্রেন দুর্ঘটনায় ৭ জন নিহত হয়েছে। আহতের সংখ্যা শতাধিক। অনেকে অ্যাম্বুলেন্স সিএনজিসহ যে যেভাবে পারছে আহতদের হাসপাতালে নিয়ে যাচ্ছে।

দুর্ঘটনার খবর পেয়ে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে পৌছেছে। হতাহতদের উদ্ধারে কাজ করছে দমকল বাহিনীর ১২টি ইউনিট। পুলিশ তাদের সহযোগিতা করছে।

এই ট্রেনের যাত্রী আরটিভির স্টাফ রিপোর্টার আশিক মাহমুদ বলেন, ট্রেন দুর্ঘটনায় কয়েকজন হতাহত হয়েছেন। চরম দুর্ভোগে পড়েছেন ট্রেনটির যাত্রীরা।

ট্রেনের যাত্রী সিলেটের জৈন্তাপুর ইমরান আহমদ ডিগ্রি কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ শাহেদ আহমদ জানান, কুলাউড়ার বরমচাল স্টেশন সংলগ্ন সেতুতে হঠাৎ ট্রেনের তিনটি বগি লাইনচ্যুত হয়ে খালে পড়ে যায় এবং একটি বগি উল্টে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই কয়েকজনের মৃত্যু হয়েছে। লাইনচ্যুত বগির যাত্রী ছাড়াও মারাত্মক ঝাঁকুনিতে অন্তত ২ শতাধিক যাত্রী আহত হয়েছেন।

গত ১৮ জুন ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের ব্রাহ্মণবাড়িয়ার শাহবাজপুর সেতু ভেঙে পড়ায় সিলেটের সঙ্গে সারাদেশের সড়ক যোগাযোগও পাঁচ দিন ধরে প্রায় বন্ধ রয়েছে। সিলেট-ঢাকা মহাসড়কে বাস চলাচল বন্ধ থাকায় ট্রেনের উপর নির্ভরশীল হয়ে পড়ে ঢাকাগামী যাত্রীরা। ফলে ধারণক্ষমতার চেয়ে অনেক বেশি যাত্রী নিয়ে সিলেট থেকে উপবন ট্রেনটি ঢাকার উদ্দেশ্যে ছেড়ে যায়। এ ঘটনার ফলে কার্যত সিলেট বিভাগ সারাদেশ থেকে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে গেল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here