খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার- এমপি বলেছেন, ‘বর্তমান সরকার কৃষি বান্ধব সরকার। কৃষক যাতে তাদের ন্যায্য মূল্য পায় সেদিকে সরকারের দৃষ্টি রয়েছে। তাই ধান বিক্রি করতে আসা কৃষক যাতে কোন রকম হয়রানীর শিকার না হয় সে দিকে লক্ষ্য রাখতে হবে। এর ব্যত্যয় ঘটলে খাদ্য গুদাম রক্ষক বা এর সাথে জড়িতদের কোন রকম ছাড় দেয়া হবে না।

বুধবার (১২ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে বরিশাল জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে সরকার নির্ধারিত মূল্যে ধান সংগ্রহ কর্মসূচি ২০১৯-২০ উপলক্ষে অনুষ্ঠিত এক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথি’র বক্তৃতায় মন্ত্রী এ হুশিয়ারী দিয়েছেন।

‘মিল মালিককরা যাতে সরকারি গুদামে চাল দেয়ার বেলায় কাবিখার চাল কিনে বা নি¤œমানের চাল সরবরাহ করতে না পারে সে বিষয়ে উপজেলা খাদ্য কর্মকর্তাদের সজাগ থাকার নির্দেশ দিয়ে মন্ত্রী বলেন, ‘চাল রপ্তানীর লক্ষ্যে সারাদেশে পাঁচ হাজার মেট্রিক টন ধারণ ক্ষমতা সম্পন্ন দুই শতাধিক সাইলো নির্মাণের পরিকল্পনা রয়েছে সরকারের।

তাই খাদ্য বিভাগের মাঠ পর্যায়ের কর্মকর্তাদের বলব আপনারা আগের অনিয়মের কথা ভুলে গিয়ে আন্তরিকভাবে কাজ করুন। অন্যথায় অনিয়মকারীদের কাউকে ছাড় দেয়া হবে না। পাশাপাশি যারা প্রকৃত কৃষক তাদের কাছ থেকেই ধান ক্রয়ের নির্দেশনা দিয়েছেন মন্ত্রী।

বরিশাল বিভাগীয় কমিশনার মুহাম্মদ ইয়ামিন চৌধুরী’র সভাপতিত্বে মতবিনিময় সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন খাদ্য মন্ত্রনালয়ের সচিব ড. মোহাম্মৎ নাজমানারা খানম ও বরিশাল জেলা প্রশাসক এসএম অজিয়র রহমান।

এছাড়া বরিশাল জেলার বিভিন্ন প্রান্তিক জনপদ থেকে আসা কৃষক, মিল মালিক, ব্যবসায়ী, খাদ্য বিভাগের উর্ধ্বতন কর্মকর্তা এবং বিভিন্ন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here