বাগেরহাটের মোল্লাহাট উপজেলায় কলেজছাত্র ছেলে আল-আমিন শেখ মারা যাওয়ার চারদিন পর মৃত্যু হয়েছে শোকাতুর মা মিনা বেগমের।

বৃহস্পতিবার (২ জুন) দুপুরে উপজেলার দারিয়ালা পূর্বপাড়া গ্রামে নিজ বাড়ির সামনে রাস্তায় পড়ে তার মৃত্যু হয়। তিনি ওই গ্রামের মো. ফুল মিয়া শেখের স্ত্রী।

মোল্লাহাট থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মতিয়ার রহমান বলেন, মিনা বেগম নামে এক নারী মাথা ঘুরে রাস্তায় পড়ে যান। স্থানীয় লোকজন উদ্ধার করে তাকে মোল্লাহাট উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

মোল্লাহাট উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রের চিকিৎসক জব্বার ফারুকী বলেন, মিনা বেগম নামে এক নারীকে তার স্বজনরা হাসপাতালে নিয়ে আসে। তবে এখানে আসার আগেই তার মৃত্যু হয়েছে। তার গায়ে কোনো আঘাতের চিহ্ন নেই।

স্থানীয়রা জানান, মিনা বেগমের ছেলে আল-আমিন শেখ মোল্লাহাট খলিলুর রহমান ডিগ্রি কলেজের ২০২২ শিক্ষাবর্ষের এইচএসসি পরীক্ষার্থী ছিলেন। তিনি গত শনিবার (২৮ মে) রাতে গ্রামের পুকুরে গোসল করতে যান। এরপর তার আর খোঁজ পাওয়া যায়নি।

পরেরদিন সকালে পুকুরে ভাসমান অবস্থায় ওই ছাত্রের মরদেহ উদ্ধার করে এলাকাবাসী। এরপর থেকে মা মিনা বেগম ছেলের শোকে পাগলপ্রায় ছিলেন। একমাত্র ছেলেকে হারিয়ে তিনি খাওয়া-দাওয়া ছেড়ে দেন এবং দিগ্বিদিক ছোটাছুটি করতেন।

স্থানীয় গাংনী ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য রবিউল আলম বলেন, একমাত্র ছেলে আল-আমিনকে হারিয়ে পাগলপ্রায় হয়ে পড়েছিলেন মিনা বেগম।

ছেলের মৃত্যু কোনোভাবেই মেনে নিতে পারছিলেন না। বৃহস্পতিবার দুপুরে বাড়ির সামনে বের হয়ে তার এই মৃত্যুতে পরিবার ও গ্রামবাসীর মধ্যে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here