জনপ্রিয় পাঞ্জাবি গায়ক সিধু মুসওয়ালার হত্যা নিয়ে সরগরম গোটা ভারত। একে-৪৭ থেকে ৩০ রাউন্ড গুলি চালিয়ে ঝাঁঝরা করে দেওয়া হয় এই তরুণ গায়ককে।

এই হত্যাকাণ্ডের মূল অভিযুক্ত হিসেবে গ্যাংস্টার লরেন্স বিষ্ণোইয়ের নাম প্রকাশ্যে আসতেই বলিউড অভিনেতা সালমানের খানের নিরাপত্তা বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে মুম্বাই পুলিশ। লরেন্স বিষ্ণোইয়ের টার্গেটে রয়েছেন সালমান খান।

হিন্দুস্তান টাইমসকে মুম্বাই পুলিশের এক সিনিয়র কর্মকর্তা জানিয়েছেন, ‘সালমান খানের নিরাপত্তা সার্বিকভাবে বাড়ানো হয়েছে। তার অ্যাপার্টমেন্টের চারপাশেও ২৪ ঘণ্টা পুলিশি টহল থাকবে, যাতে রাজস্থানের এই গ্যাং (লরেন্স বিষ্ণোই) কোনোরকম পদক্ষেপ গ্রহণ করতে না পারে।’

কৃষ্ণসার হরিণ শিকার ঘটনায় সালমান খানকে হত্যার হুমকি দিয়েছিলেন লরেন্স বিষ্ণোই। বিষ্ণোই সম্প্রদায়ের কাছে পবিত্র বলে গণ্য করা হয় কৃষ্ণসার হরিণকে। ১৯৯৮ সালে সালমান খানের উপর যোধপুরে সিনেমার শুটিং চলাকালীন দুটি কৃষ্ণসার হরিণ হত্যার অভিযোগ রয়েছে। সেই সময় থেকে বিষ্ণোই সম্প্রদায়ের চক্ষুশূল সালমান। এর আগে বেশ কয়েকবার সালমান খানকে শার্প শুটার দিয়ে হত্যার ছক কষেছে গ্যাংস্টার লরেন্স বিষ্ণোই। ২০১৮ সালে লরেন্স আদালতের বাইরে দাঁড়িয়ে বলেছিল, ‘আমরা যোধপুরে সালমান খানকে হত্যা করব।’

২০২০ সালে এক যুবককে খুনের অপরাধে উত্তরাখণ্ড থেকে গ্রেপ্তার করা হয় রাহুল নামের ২৭ বছরের শার্প শ্যুটারকে। পুলিশি জেরায় সে স্বীকার করেছিল সালমান খানকেও হত্যার ছক কষছিল তার দল। এমনকি কখন, কোথায়, কিভাবে অভিনেতাকে হত্যা করা হবে, তার জন্য রেইকি করতে মুম্বাই পর্যন্ত এসেছিল লরেন্সের সহযোগীরা।

এদিকে পাঞ্জাবের জনপ্রিয় গায়ক সিধু হত্যার দায় স্বীকার করেছে কানাডার গ্যাংস্টার গোল্ডি ব্রার। লরেন্স বিষ্ণোইয়ের ঘনিষ্ঠ হিসেবেই পরিচিত সে। বর্তমানে তিহার জেলে বন্দি বিষ্ণোই। তবে ইন্ডিয়ার এক্সপ্রেসকে দিল্লি পুলিশ জানিয়েছে, জেলে বন্দি থাকলেও বিষ্ণোই তার দলের লোকজনদের সঙ্গে এখনও যোগাযোগ রাখে। তাই সিধু খুনের সঙ্গে তার কোনো যোগাযোগ রয়েছে কিনা তা খতিয়ে দেখা চেষ্টা করছে পুলিশ।

মঙ্গলবার দিল্লি হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয় এই গ্যাংস্টার। সংকটে তার জীবন, ‘ফেক এনকাউন্টার’ করে মেরে ফেলা হতে পারে তাকে এমন আবেদন জানিয়ে দিল্লি হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয় সে। মুসা হত্যা মামলায় তার কাস্টডি কোনোভাবেই যাতে পাঞ্জাব পুলিশকে না দেওয়া হয় সেই আবেদনও জানিয়েছে এই গ্যাংস্টার।

সিধু মুসওয়ালা খুনের পর বলিউডের জনপ্রিয় গায়ক মিকা সিংয়ের নিরাপত্তাও বাড়ানো হয়েছে। একটি শোয়ের শুটিংয়ের জন্য মিকা বর্তমানে যোধপুরে রয়েছেন। যোধপুরে মিকার হোটেল ঘিরে ফেলা হয়েছে নিরাপত্তার মোড়কে। সেই সঙ্গে পুলিশের টহলদারি গাড়িও সব সময় নজর রাখছে মিকা সিং যে হোটেলে রয়েছেন, তার উপর।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here