এপেক্স হোমিওপ্যাথি কলেজের জমি নিয়ে ২০১৬ সালে আবদুল মান্নান সন্যামত এর ভোগদখলে থাকা এওয়াজ বদলকৃত ক তফসিল ভুক্ত সম্পত্তির উপর বাদি হয়ে মামলা দায়ের করেন জমি বুঝে পাবার জন্য। তারি ধারাবাহিকতায় দির্ঘ ৪ বছর মামলাটি চলমান। সর্বশেষ হাইকোর্টের একটি রিটের পরিপ্রেক্ষিতে। হাইকোর্ট একটি রুল জারি করে, এই মর্মে রুলটি জারি করেন যে সমঝোতা স্মারকের মাধ্যমে এওয়াজ বদল কৃত সম্পত্তি বুঝিয়ে দেওয়ার জন্য বলা হয়।

এরি ধারাবাহিকতায় আজ ২৮ ফেব্রুয়ারি বিকাল ৪ টায় জেলা প্রশাসন এস, এম, অজিয়র রহমান এর মধ্যস্থতায় উভয় পক্ষের সমঝোতার মাধ্যমে ১ম পক্ষ আবদুল মান্নান সন্যামত কে তার ৯.২৯ শতাংশ জমি সকলের উপস্থিতে হস্তান্তর করার মাধ্যদিয়ে বুঝিয়ে দেওয়া হয়। এবং আগামী ৭ দিনের মধ্যে বাদি পক্ষ দায়ের কৃত মামলা নিজ দায়িত্বে নিজ খরচে তুলে নিবেন বলে সমাঝোতায় বলা হয়।

সমঝোতা স্মারকের সময় উপস্থিত ছিলেন প্রথম পক্ষ আবদুল মান্নান সন্যামত, দ্বিতীয় পক্ষ জেলা প্রশাসক এস,এম, অজিয়র রহমান, সভাপতি এপেক্স হোমিওপ্যাথি কলেজ বরিশাল, অশোক কুমার রায়, সুভাষ চন্দ্র বিপ্ল বেদায়ান্তী, অ্যাডভোকেট জজ কোট বরিশাল, অ্যাডভোকেট কাজী মনিরুল হাসান, বরিশাল বার, ডাঃ জাকির হোসেন, অধ্যক্ষ এপেক্স হোমিওপ্যাথি কলেজ বরিশাল, মোহাম্মদ হোসেন চৌধুরী, সদস্য সহ অন্যান্যদের উপস্থিতিতে সমঝোতা স্মারক সম্পূর্ণ হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here