ঝালকাঠি জেলার কাঠালিয়া উপজেলায় দুই স্কুল ছাত্রীকে পাচারের চেষ্টাকালে সাথী বেগম (২৫) নামের এক নারী পাচারকারীকে আটক করেছে পুলিশ।

এ বিষয় কাঠালিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ মো. এনামুল হক জানান, পাচারকারী সাথী বেগম ও রাহুলসহ একটি সঙ্ঘবদ্ধ চক্র দুই স্কুল ছাত্রীকে পাচারের চেষ্টাকালে সাথী বেগমকে আটক করে দুই ছাত্রীকেও উদ্ধার করেত আমরা সক্ষম হই। এ ঘটনায় মানব পাচার আইনে একটি মামলা হয়েছে। উৃদ্ধারকৃত দুই ছাত্রীকে মঙ্গলবার বিকেলে আদালতে নেয়া হলে আদালত ৬৪ধারায় তাদের জবানবন্দি রেকর্ড করে এবং গ্রেফতারকৃত সাথী বেগমকে দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করে।

অনুসন্ধানে জানা যায়, মাহাফুজা আক্তার ও কুসুম আক্তার নামের দুই স্কুল ছাত্রীকে সাথী বেগম পাচার করে নিয়ে যাওয়ার সংবাদে পুলিশ ঘটনা স্থানে গিয়ে দুই স্কুল ছাত্রীকে উদ্ধার পূর্বক সাথী বেগম নামের এক নারী পাচারকারীকে আটক করে। উদ্ধারকৃত ভিকটিম মাহাফুজা আক্তার উপজেলার দক্ষিণ চেচঁরী গ্রামের আনিসুর রহমানের মেয়ে সে চেঁচরী রামপুর এম এল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণির ছাত্রী এবং কুসুম আক্তার একই এলাকার আঃ জব্বার হাওলাদারের মেয়ে সেও একই বিদ্যালয়ের ৬ষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী। অপরদিকে আটককৃত পাচাকারি সাথী বেগম উপজেলার দক্ষিণ চেচঁরী গ্রামের সেলিম হাওলাদারের মেয়ে।

এ ঘটনায় মঙ্গলবার (২২ অক্টোবর) সকালে দক্ষিণ চেচঁরি গ্রামের আঃ মান্নান হাওলাদার বাদি হয়ে সাথী বেগম ও রাহুল নামের দুইজনের নাম উল্লেখ পূর্বক অজ্ঞাতনামা আরো ৩/৪ জনকে আসামি করে মানব পাচার আইনে কাঠালিয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here