ভোলার তজুমদ্দিনে অবৈধভাবে চাল মজুত ও মালিকানা গোডাউনে লাইসেন্স না থাকার অভিযোগে অভিযাচ চালিয়ে ৩৮ টন (৭৬০বস্তা) সরকারী চাল জব্দ করেন উপজেলা প্রশাসন। এসময় অবৈধ মজুতের সাথে জড়িত থাকায় গোডাউন মালিকের ছোট ভাইকে আটক করা হয়। জব্দ করা চাল পুলিশের হেফাজতে রাখা হয়েছে।

সুত্রে জানা যায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তজুমদ্দিন উপজেলা নির্বাহি কর্মকর্তা মরিয়ম বেগম শশীগঞ্জ বাজারের দক্ষিণ মাথায় মেঘনা রোডে মেসার্স হাওলাদার রাইচ এন্টারপ্রাইজের মালিক মোঃ নুরনবী হাওলাদারের গোডাউনে অভিযান পরিচালনা করেন।

এ সময় লাইসেন্স না থাকায় অবৈধ মজুতের দায়ে তার গোডাউন থেকে (কাবিখার) সরকারী ৩৮ টন চাল জব্দ করেন। পরে অবৈধ মজুতের সাথে জড়িত থাকার দায়ে গোডাউন মালিক নুরনবী ছোট ভাই মো. মিজান হাওলাদারকে পুলিশ আটক করেন। জব্দকৃত চাল রাত সাড়ে ১২টায় অভিযান শেষে পুলিশের নিকট হস্তান্তর উপজেলা নির্বাহি কর্মকর্তা।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে তজুমদ্দিন থানার অফিসার ইনচার্জ এস এম জিয়াউল হক বলেন, অবৈধভাবে চাল মজুত করার দায়ে মিজান নামে একজনকে আটক করা হয়েছে। অবৈধ মজুতদারদের বিরুদ্ধে নিয়মিত মামলার প্রস্তুতি চলছে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মরিয়ম বেগম বলেন, গোপন সংবাদে তজুমদ্দিন সদরে একটি চালের গোডাউনে অভিযান করে ৭৬০ বস্তা চাল জব্দ করা হয়। গোডাউনের লাইসেন্স নবায়ন ছিল না এবং জব্দ করা চাল সে অবৈধভাবে মজুত করছিলেন।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here