ঝালকাঠি সরকারি মহিলা কলেজের ছাত্রী বেনজির জাহান মুক্তার (১৯) হত্যাকারী ও প্রেমিক সোহাগকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। আজ বৃহস্পতিবার (৭ফেব্রুয়ারী) বিকেলে কলাপাড়া উপজেলার চাকা মইয়া গ্রামের ফুপুর বাড়ি থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

নলছিটি ও কলাপাড়া থানা পুলিশের যৌথ টিম অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করে বলে কলাপাড়া থানার ওসি (অপারেশন) মো. মনিরুজ্জামান নিশ্চিত করেন। গ্রেপ্তারকৃত সোহাগকে নিয়ে নলছিটি থানার ওসি তদন্ত আ. হালিম তালুকদার ঝালকাঠির উদ্দেশ্যে রওয়ানা হয়েছে বলে তিনি জানান।
এ বিষয়ে শুক্রবার যেকোন সময় সংবাদ সম্মেলন করে সাংবাদিকদের আনুষ্ঠানিকভাবে জানানো হবে বলে পুলিশের একটি সূত্র জানিয়েছে। এ সূত্রটি আরও জানায়, সোহাগকে গ্রেফতার করতে পুলিশের ৩টি টিম মাঠে কাজ করেছে।

ঝালকাঠি সরকারি কলেজ প্রথম বর্ষের ছাত্রী বেনজির জাহান মুক্তা নলছিটি উপজেলার বারইকরণ গ্রামের অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক জাহাঙ্গীর হাওলাদারের মেয়ে। সোমবার দুপুর আড়াইটায় সে কলেজ থেকে বাড়ি ফেরার পর মোবাইল ফোনের মাধ্যমে ডেকে নিয়ে উপর্যুপরি কুপিয়ে হত্যা করা হয়। এ ঘটনায় মঙ্গলবার দুপুরে তার বাবা জাহাঙ্গীর হাওলাদার বাদী হয়ে কথিত প্রেমিক সোহাগসহ অজ্ঞাত আরো দুই-তিন জনকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলায় কলাপাড়ার সোহাগ নামে এক যুবকের সঙ্গে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে সম্পর্ক গড়ে ওঠে বলে উল্লেখ করা হয়।

অন্যদিকে নিহত মুক্তার মা তাসলিমা বেগম ও বড় বোন রিফাত জাহান দাবী করেন, ফেসবুকে পরিচয়ের সূত্রে উক্ত সোহাগের সাথে সম্পর্ক গড়ে উঠলেও কিছুদিন পূর্বে তাদের সম্পর্ক ভেঙে যাওয়ায় সে প্রতিশোধ নিতে মরিয়া হয়ে ওঠে। তাছাড়া ঘটনার দিন সোহাগ তাকে ফোন করে বাড়ি থেকে সামনে বের হতে বলে। তাকে পুলিশ গ্রেফতার করতে পারলেই হত্যার প্রকৃত কারণ জানা যাবে বলে দাবী করে আসছিলেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here