পটুয়াখালী কলাপাড়া উপজেলায় মহিপুর ইউনিয়নে জেলেদের ভিজিএফ’র চাল ওজনে কম দেওয়ার অভিযোগে ৭নং ওয়ার্ডের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান মো. মামুন হাওলাদারের বিরুদ্ধে মহিপুর থানায় মামলা করেছে উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা। পরে তাকে আটক করেছে মহিপুর থানা পুলিশ।

সোমবার (২৮ অক্টোবর) বেলা ২ টার সময় মহিপুর ইউনিয়নে জেলেদের ২০ কেজি করে চাল দেয়ার কথা থাকলেও ওজনে কম দিয়ে ১৫ কেজি করে চাল দেয়া হয়। এ সময় মহিপুর ইউনিয়ান পরিষদের ৭নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান মো. মামুন হাওলাদারের বিরুদ্ধে ওজনে কম দেওয়ায় জেলেদের সাথে বাকবিতণ্ডা শুরু হলে মহিপুর থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

কলাপাড়া প্রকল্প কর্মকর্তা তপন ঘোষ জানান, জেলেদের ২০ কেজি করে চাল দেয়ার কথা থাকলেও ওজনে কম দেয়ার প্রমাণ পাওয়া গেছে। চাল কম দেওয়ায় তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার কথাও জানালেন তিনি।

এ বিষয় মহিপুর থানায় উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মনোজ কুমার সাহা বাদী হয়ে তার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। মহিপুর ইউনিয়নে প্রজনন মৌসুমে ১২শ’ জেলেকে চাল দেয়া হবে। আজ দুপুর থেকে ৬৮৭ জনকে চাল দেয়া শুরু করে। বাকিদের আগামীকাল চাল দেয়ার কথা ছিল।

৯ অক্টোবর থেকে ৩০ অক্টোবর ইলিশের প্রজনন মৌসুম হওয়ায় এই সময় জেলেদের নদী কিংবা সমুদ্র সব ধরনের মাছ ধরা নিষিদ্ধ করেছে সরকার। এই সময় জেলেরা বেকার হয়ে পড়েন। তাই এই সময় তাদের প্রতি জনকে ২০ কেজি করে ভিজিএফ’র চাল সহযোগিতা দিয়ে থাকে সরকার।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here