পিরোজপুরের ভাণ্ডারিয়া উপজেলায় টাকা-পয়সা ও স্বর্ণালঙ্কার নিয়ে ঘর ছাড়লো প্রবাসীর স্ত্রী। স্ত্রীর ফাঁদে পড়ে প্রবাসী স্বামী এখন পথে বসতে হচ্ছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার গাজীপুর গ্রামের আলী আকাব্বারের ছেলে মোঃ হালিম হাওলাদারের সাথে একই উপজেলার সিংহখালী গ্রামের হেমায়েত গাজীর মেয়ে মাহমুদা আক্তারের সাথে তিন বছর আগে ইসলামী শরিয়াহ মোতাবেক বিবাহ হয়। বিবাহের কিছুদিন পরে স্বামী হালিম হাওলাদার জীবিকার তাগিদে বিদেশে যান।

তিনি প্রবাসে থাকায় স্ত্রী মাহমুদা পরকিয়ায় জড়িয়ে পড়েন। অপরদিকে প্রবাসী স্বামীর কাছ থেকে বিভিন্ন সময় কৌশলে ৮ লাখ টাকা ও তিন ভরি স্বর্ণালঙ্কার হাতিয়ে নেয়। স্ত্রীর তালবাহানা বুঝতে পেরে স্বামী প্রবাস ছেড়ে দেশে ছুটে আসেন। স্ত্রী তাকে দেখে হঠাৎ কৌশলে গত ২৪ জুন বাবার বাড়ী বেড়াতে যান।

পরে গৃহবধূ মাহমুদাকে তার স্বামী ও স্বজনরা বাড়ীতে আনতে গেলে স্ত্রী তাদের সাথে আসতে রাজী না হয়ে উল্ট তাদেরকে অপমান করে তাড়িয়ে দেয় ও উল্ট মামলার হুমকি দেয়। সেই থেকে স্ত্রী মাহমুদা আত্মগোপনে রয়েছে।

এরপর গত ২৯ জুলাই স্ত্রী চেয়ে লিগ্যাল নোটিশ করে প্রবাসী হালিম হাওলাদার। স্ত্রী না আসায় নিরুপায় হয়ে স্বামী হালিম হাওলাদার গত ৮ আগস্ট পিরোজপুর জেলা বিজ্ঞ সহকারী জজ আদালতে একটি মামলা করেন।

প্রবাসী হালিমের বাবা আকাব্বার বলেন, দেশ থেকে বিদেশে গিয়ে আমার বাবা যে টাকা পয়সা উপর্জন করেছে তা সব ওই ডাইনি কেড়ে নিয়ে পালিয়েছে। এখন আমার ছেলের হাতে কোন টাকা কড়ি নেই।

এ বিষয়ে পলাতক স্ত্রীর স্বজনদের সাথে যোগাযোগ করলে তারা কোন প্রশ্নের জবাব দিতে রাজী হয়নি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here