সরকারের নানা পদক্ষেপ নেওয়ার পরেও কমছে না পিয়াজের দাম। জরুরি ভিত্তিতে ইতোমধ্যে কয়েকটি দেশ থেকে পিয়াজ আমদানি করা হলেও পিয়াজের দাম বৃদ্ধিতে তেমন কোনও পরিবর্তন আসেনি। চলতি বছরে পিয়াজের দাম বেড়েছে সর্বোচ্চ ৩০০ টাকা পর্যন্ত।

 

বাংলাদেশ প্রতিযোগিতা কমিশনের কাছে দেশের পিয়াজের বাজার পরিস্থিতি ও প্রতিযোগিতার অবস্থা তুলে ধরে একটি প্রতিবেদন জমা দিয়েছে বাংলাদেশ উন্নয়ন গবেষণা প্রতিষ্ঠান (বিআইডিএস)। বাংলাদেশ প্রতিযোগিতা কমিশনের অনুরোধে করা ওই গবেষণা প্রতিবেদনের প্রাথমিক ফলাফল সম্প্রতি চূড়ান্ত করে জমা দেওয়া হয়েছে।

 

বিআইডিএসের গবেষণায় বলা হয়, সিলেট অঞ্চলের মানুষ বেশি পিয়াজ খায়। অন্যদিকে, পিয়াজ কম খায় বরিশাল অঞ্চলের মানুষ। বিভাগ ভিত্তিক পিয়াজ খাওয়া নিয়ে গবেষণা করে কৃষি বিপণন অধিদপ্তর, খাদ্য অধিদপ্তর এবং খাদ্য মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তাদের সঙ্গেও কথা বলেছেন গবেষকেরা। বিআইডিএসের জ্যেষ্ঠ গবেষণা ফেলো নাজনীন আহমেদের নেতৃত্বে মূল গবেষণাটি করা হয়।

গবেষণা বলছে, সিলেট অঞ্চলের পরিবারগুলো গড়ে চার কেজি ৯১ গ্রাম পিয়াজ ব্যবহার করে। অন্যদিকে, ঢাকায় তিন কেজি ৫৬ গ্রাম, রাজশাহীতে ৩ কেজি ৭৪ গ্রাম চট্টগ্রামে ৩ কেজি ১৯ গ্রাম, খুলনায় দুই কেজি ৬২ গ্রাম ও রংপুরে ২ কেজি ৫০ গ্রাম পেঁয়াজ ব্যবহার হয়ে থাকে।

 

বাংলাদেশ প্রতিযোগিতা কমিশনের চেয়ারপারসন মো. মফিজুল ইসলাম বলেন, বিআইডিএসকে দিয়ে পিয়াজের গবেষণা করিয়েছি। পিয়াজ নিয়ে স্থায়ী সমাধান খুঁজতেই এমন উদ্যোগ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here