আন্দোলনের পরিপ্রেক্ষিতে সরকার গত বছর প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণির সরকারি চাকরিতে সব ধরনের কোটা বাতিল করলেও আজ সোমবার মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম বলেছেন, প্রতিবন্ধীদের কোটা যা ছিল তাই আছে। সচিবালয়ে মন্ত্রিসভার বৈঠকের সিদ্ধান্ত জানাতে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রিপরিষদ সচিব এই কথা বলেন।

মন্ত্রিসভার বৈঠকে প্রতিবন্ধী ব্যক্তির অধিকার ও সুরক্ষা আইন-২০১৩ এবং প্রতিবন্ধী ব্যক্তির অধিকার ও সুরক্ষা বিধিমালার আলোকে প্রতিবন্ধীবিষয়ক জাতীয় কর্ম পরিকল্পনার খসড়া অনুমোদন দেওয়া হয়। এই কর্মপরিকল্পনা গণপরিবহনসহ বিভিন্ন জায়গায় প্রতিবন্ধীদের চলাচলের সুবিধাসহ বিভিন্ন সুযোগ রাখার কথা বলা হয়েছে।

এ বিষয়টি জানানোর সময় সাংবাদিকেরা সরকারিতে চাকরিতে প্রতিবন্ধীদের কোটা নিয়ে প্রশ্ন করেন। জবাবে মন্ত্রিপরিষদ সচিব শফিউল আলম বলেন, প্রতিবন্ধীদের জন্য কোটা যা ছিল তাই আছে। তিনি বলেন ‘মন্ত্রিসভায় এ বিষয়ে আলোচনা হয়নি। আপনাদের জানার জন্য বলি, আইনে যে বিধান ছিল সেটা বাতিল হয়নি। কারণ প্রশাসনিক আদেশ দিয়ে আইন অতিক্রম করা যায় না।’

উল্লেখ্য, শিক্ষার্থী ও চাকরিপ্রার্থীদের আন্দোলনের পরিপ্রেক্ষিতে গত বছর বিদায়ী সরকার প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণির সরকারি চাকরিতে সব ধরনের কোটা বাতিল করে। কিন্তু প্রতিবন্ধী ব্যক্তির অধিকার ও সুরক্ষা আইনে স্পষ্ট করে প্রতিবন্ধীদের জন্য কোটা সংরক্ষণ ও তাঁদের বয়স শিথিল করার কথা রয়েছে। এ কারণে পুরোপুরি কোটা বাতিলের সিদ্ধান্তকে আইনের সঙ্গে সাংঘর্ষিক বলে সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়ই বলে আসছে। প্রতিবন্ধী কোটা বহালের দাবিতে প্রতিবন্ধীরাও আন্দোলন করেছেন। এমন অবস্থায় মন্ত্রিপরিষদ সচিবের কাছ থেকে এই বক্তব্য এল

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here