স্যার ফজলে হাসান আবেদ অসাধারণ দায়িত্ববোধ, সহমর্মিতার গভীর জীবন দর্শন ও নিরলস শ্রমের এক অবিস্মরণীয় ও অনুকরণীয় ব্যক্তিত্ব বলে মন্তব্য করেছেন ব্র্যাকের চেয়ারপারসন হোসেন জিল্লুর রহমান।

সদ্য বিদায়ী ব্র্যাকের প্রতিষ্ঠাতা সম্পর্কে শনিবার এক বিবৃতিতে একথা বলেন তিনি।

হোসেন জিল্লুর বলেন, সবচেয়ে পিছিয়ে পড়া মানুষটাও ভাগ্য পরিবর্তনের সম্ভাবনা থাকে, এই বিশ্বাসে ভর করেই সফলভাবে গড়েছেন বিশ্বের বৃহত্তম বেসরকারি সংস্থা ব্র্যাক। বাংলাদেশের সীমানা ছাড়িয়ে আজ যা সারা বিশ্বে সমাদৃত।

‘কিন্তু ঐ সাহস, ঐ আকাঙ্ক্ষা একেবারেই শেকড় থেকে আসা। চলে যাওয়ার বেদনার এই মুহূর্তেও পরপার থেকে তার স্মিত হাসি তাই ভরসা দিচ্ছে সহমর্মিতা, দায়িত্ববোধ ও শ্রম আঁকড়ে ধরে আরও বহুদূর যাওয়া যাবে, যেতে হবে। কারণ পৃথিবীতে ভাগ্যবিড়ম্বিত মানুষের সংখ্যা এখনও অগণিত। শ্রদ্ধা ও ভালোবাসায় বিদায়,’ বলেন হোসেন জিল্লুর।

শুক্রবার রাত ৮টা ২৮ মিনিটে রাজধানীর অ্যাপোলো হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি। দীর্ঘদিন ধরে স্যার ফজলে হাসান আবেদ ব্রেন টিউমারে আক্রান্ত ছিলেন। গত ২৮ নভেম্বর ওই হাসপাতালে ভর্তি হন তিনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here