বরগুনার আমতলীতে ২০১৯ সালের প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষার ফলাফল জালিয়াতির অভিযোগে মানববন্ধন, বিক্ষোভ মিছিল শেষে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ও বরগুনা জেলা প্রশাসক বরাবর স্মারকলিপি দিয়েছে আমতলী পৌরসভার দুটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পিইসি পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারী শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা।

 

 

আজ রবিবার দুপুর ১টায় উপজেলা পরিষদ চত্ত্বরে আমতলী পৌরসভার বন্দর মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও একে হাই সংলগ্ন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পিইসি পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারী শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা ঘণ্টাব্যাপী মানববন্ধনে অংশ নেয়।
মানববন্ধন কর্মসূচিতে অভিভাবকরা অভিযোগ করে বলেন, ২০১৯ সালে অনুষ্ঠিত পিইসি পরীক্ষায় আমতলী বন্দর মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে থেকে অংশ নেওয়া রোল ১ থেকে ১৪ পর্যন্ত পরীক্ষার্থীরা কেউ জিপিএ ৫ পায়নি।

 

 

অপরদিকে আমতলী একে হাই সংলগ্ন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পরীক্ষার্থীদের মার্ক কমিয়ে দেওয়ার কারণে অনেক ভালো শিক্ষার্থী জিপিএ ৫ পায়নি বলে অভিভাবকরা অভিযোগ করেন।
মানববন্ধন শেষে অভিভাবক ও পরীক্ষার্থীরা বিক্ষোভ মিছিল করে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মনিরা পারভীনের মাধ্যমে মহাপরিচালক প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর ও বরগুনা জেলা প্রশাসক বরাবর স্মারকলিপি দিয়েছেন।

 

আমতলী বন্দর মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. জাকির হোসেন বলেন, আমার বিদ্যালয়ের ১ থেকে ১৪ রোল পর্যন্ত প্রতিটি শিক্ষার্থীই জিপিএ ৫ পাওয়ার যোগ্য।
আমতলী উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মজিবুর রহমান বলেন, এ বিষয়ে লিখিত অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

 

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মনিরা পারভীন স্মারকলিপি পাওয়ার কথা স্বীকার করে বলেন, যথাযথ কর্তৃপক্ষের কাছে স্মারকলিপি পাঠানো হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here