বরগুনার তালতলীতে জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে মোস্তফা কামাল (৩৫) নামের এক সাংবাদিককে হাতুড়ি দিয়ে হাত-পা গুঁড়িয়ে দিয়েছে সন্ত্রাসীরা। আহত ওই সাংবাদিক মুমুর্ষূ অবস্থায় বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালের ৩য় তলার অর্থোপেডিক্স ওয়ার্ডের ১৪ নম্বর বেডে চিকিৎসাধীন রযেছে।

উপজেলার বড় আমখোলা গ্রামের নাজির বাড়ি জামে মসজিদের কাছে শুক্রবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) রাত ৮টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

আহত সাংবাদিক ও তার পরিবার সূত্রে জানা গেছে- বরিশালের দৈনিক কীর্তনখোলার তালতলী উপজেলা প্রতিনিধি মোস্তফা কামালের লাউপাড়া বাজারে এস আলম (বইয়ের) লাইব্রেরি এন্ড কম্পিউটার ও ব্যাংক এশিয়া এজেন্ট ব্যাংকিং-এর ব্যবসা রয়েছে। শুক্রবার রাত ৮টার দিকে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ করে সে মোটরসাইকেল যোগে লাউপাড়া বাজার থেকে বাড়িতে যাচ্ছিল। বাড়ির কাছাকাছি পৌঁছলে পূর্বে ওঁৎ পেতে থাকা সন্ত্রাসীরা গাছের সঙ্গে রশি বেঁধে মোস্তফা কামালের মোটরসাইকেলের গতিরোধ করে।

এ সময় কতিপয় চিহ্নিত সন্ত্রাসীরা কাছে এসে মোস্তফা কামালকে হাতুড়িপেটা করে উভয় হাত ও পা গুঁড়িয়ে দেয়। পরে তার সঙ্গে থাকা ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের ১ লাখ ৭০ হাজার টাকা ও একটি এন্ড্রয়েট মোবাইল ফোন লুটে নিয়ে মুমুর্ষূ অবস্থায় তাকে রাস্তার পাশে ফেলে রেখে চলে যায়। খবর পেয়ে স্থানীয় লোকজন এসে তাকে আশঙ্কা জনক অবস্থায় উদ্ধার করে বরিশাল শেরে বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন। কর্তব্যরত ডাক্তার মাহবুব মোর্শেদ রানা জানিয়েছে, সাংবাদিক কামালের ডান পায়ের হাটুর অবস্থা আশংকা জনক।

তালতলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) পুলক চন্দ্র রায় জানান, খবর পেয়ে তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। তবে কেউ অভিযোগ দেয়নি। অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here