পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী কর্নেল (অব.) জাহিদ ফারুক শামীম বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী বরিশালের বিভিন্ন স্থানে নদী ভাঙন প্রতিরোধের নির্দেশ দিয়েছেন। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ অনুযায়ী আগামী বর্ষার আগেই বরিশালের বিভিন্ন স্থানে নদী ভাঙন প্রতিরোধে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।

বৃহস্পতিবার বরিশালের কীর্তনখোলা নদীর ভাঙনকবলিত বেলতলা, চরবাড়িয়া, লামছড়ি, জনতারহাট এবং চরকাউয়া এলাকা পরিদর্শনকালে মন্ত্রী আবেগাপ্লুত হয়ে বলেন, ছোট বেলায় তিনি যখন সদর উপজেলায় যেতেন, তখন নদী ভাঙনকবলিত মানুষের দুঃখ-দুর্দশা দেখে তাদের জন্য কিছু করার কথা ভাবতেন। সৃষ্টিকর্তার মেহেরবানীতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাকে সেই পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব দিয়েছেন। এখন মানুষের দুঃখ-দুর্দশা রোধে নদী ভাঙন প্রতিরোধে তিনি কার্যকর ব্যবস্থা নেবেন।

নির্বাচনের আগে দেয়া প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী, বরিশালকে একটি ‘মিনি সিঙ্গাপুরে’ পরিণত করার জন্য সকলের সহযোগিতা এবং দোয়া কামনা করেন মন্ত্রী। আগামী কয়েক বছরে পদ্মা সেতু, পায়রা বন্দর, ফোরলেন রাস্তা ও রেললাইন দৃশ্যমান হবে। বরিশালে আসবে ভোলার গ্যাস। এরপরই বরিশালে আমূল পরিবর্তন চোখে পড়বে। সদর উপজেলার ১০টি ইউনিয়নকে শহরে পরিণত করার প্রতিশ্রুতি পুনরোল্লেখ করেন বরিশাল সদর আসনের এই সংসদ সদস্য।

মন্ত্রী নৌপথে ভাঙনকবলিত এলাকা পরিদর্শনকালে বিভিন্ন স্থানে উপস্থিত জনতার উদ্দেশ্যে পথসভায় বক্তব্য রাখেন। এ সময় মন্ত্রীর সাথে জেলা প্রশাসন ও পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তাসহ স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here