শুক্রবার সকাল ১১টায় মুলাদিতে ব্যবসায়ী মোকলেস খান (৪০) কে কুপিয়ে ও পিটিয়ে হত্যা করেছে প্রতিপক্ষরা। মোকলেস খান মোল্লার হাট বাজারের মুদি ব্যবসায়ী। সে আলিমাবাদ গ্রামের মৃত মোজাম্মেল খানের পুত্র। শুক্রবার জুম্মার নামাজ আদায়ের জন্য দোকান বন্ধ করে বাড়ির উদ্দেশ্যে রওনা করে মোকলেস খান। নাসির ফকিরের বাড়ির সামনে আসার সাথে সাথে নেছারুদ্দীন শিকদারের বাহিনী সলেমান, মোজাম্মেল, আলতাফ, শাহীন, রুবেল, জামাল, আলামিন, আরিফ, নাসির, কালাম হাওলাদার, সাইদুল হাওলাদার, মোস্তফা, আকবর ফকির, বেল্লাল ফকির , তোফাজ্জেল হোসেন সহ ১৫-২০ জনের একটি বাহিনী তার মটরসাই‌কে‌লের গতিরোধ করে তাকে শাবল, টেডা, লা‌ঠি সহ দেশীয় অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে ও পিটিয়ে মৃত্যু ‌ভে‌বে তার ব‌ডি নিয়ে উল্লাস করতে করতে আলতাফ ফকিরের বাড়ি নিয়ে যায় ।

এ সময় ওই বাড়ির মহিলারা তা‌কে (‌মোক‌লেস) কে বেধরক পিঠায়। এসময় মোকলেস খানের স্ত্রী ও প্রতিবেশীরা এগিয়ে আসলে তাদের উপর হামলা চালায় শিকদারের বাহিনী । পরবর্তীতে স্থানীয়রা পুলিশকে খবর দিলে মুলাদী থানার বোয়ালীয়া পুলিশ ফাঁড়ির পুলিশ কর্মকর্তারা ঘটনাস্থ‌লে উপস্থিত হয়ে মোক‌লেস‌কে উদ্ধার করে। উদ্ধা‌রের প‌রে তাকে বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি কর‌লে রাত ৮টার পরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মোকলেছ খানের মৃত্যু হয় । প্রতিবেশী ও স্থানীয়রা দাবি করে পূর্বশত্রুতার জেরে নেছার উদ্দিন শিকদার এর কাহিনী

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here