বরিশাল সদর উপজেলার ইটভাটায় ও  ঝালকাঠির নলছিটি উপজেলায় ২ জনকে ২ মাস করে ও ১ জনকে ৩ মাসের কারাদন্ড ও ৩০ হাজার টাকা জরিমানা প্রদান করে ভ্রাম্যমান আদালত ।

মঙ্গলবার বরিশাল পরিবেশ অধিদপ্তরের পরিচালক ও নির্বাহী ম্যাজিট্রেট আবদুল হালিম এ রায় দেন । এ সময় সহযোগিতায় ছিলেন পরিবেশ অধিদপ্তরের পরিদর্শক জনাব মো: তোতা মিয়া ।ও আর্মড পুলিশ ব্যটালিয়ন সদস্যরা ।

জানা গেছে, “ইট প্রস্তুত ও ভাটা স্থাপন আইন, ২০১৩” অনুযায়ী জেলা প্রশাসকের লাইসেন্স ব্যতিত ইট উৎপাদন করায় ৪নং ধারায় বরিশাল বন্দর থানাধীন বড়ইকান্দির মেসার্স খান ব্রিকসের সহকারী ম্যানেজার মো: মোস্তফা হাওলাদার ও  নাসির হাওলাদারকে ২ মাস করে বিনাশ্রম কারাদন্ড ও ৫ হাজার টাকা করে জরিমানা অনাদায়ে আরও তিন মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করা হয় ।

ঝালকাঠির নলছিটি উপজেলার কৃষ্ণকাঠির মেসার্স মিল্লাহ ব্রিকসের প্রতিনিধি মো: জুয়েলকে ৩ মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড এবং ২০ হাজার টাকা জরিমানা ও আরও ৩ মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করে ।

পরিবেশ অধিদপ্তরের পরিচালক ও নির্বাহী ম্যাজিট্রেট আবদুল হালিম জানান, এ অভিযান অব্যাহত থাকবে । পরিবেশ রক্ষার জণ্য এ ধরনের ইটভাটা বন্ধ করতে হবে । এই ইট ভাটাগুলোর কার্যক্রম পরিবেশ বিরোধি যা পরিবেশের জন্য হুমকি স্বরূপ ।

এছাড়াও ইটভাটা তৈরি করতে বন বিভাগ, কৃষি বিভাগ, বিএসটিআই,পরিবেশ অধিদপ্তরসহ সরকারের বিভিন্ন দপ্তরের প্রত্যয়ন ও অনুমতি প্রয়োজন হলেও এ আইনের কোনো তোয়াক্কা না করে এসব এসব ইট ভাটাগুলো গড়ে উঠেছে ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here