বরিশাল নগরীর সদর রোডস্থ ডায়াগনস্টিক সেন্টার বেলভিউ মেডিকেল সার্ভিসেসকে এক্সরে টেস্টে অতিরিক্ত ফি নেয়ার অভিযোগে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর একটি অভিযোগের ভিত্তিতে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করেছে। মঙ্গলবার বরিশাল মহিলা ক্লাবস্থ ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের কার্যালয় শুনানী শেষে এই জরিমানা করা হয়।

এসময় বেলভিউ মেডিকেল সার্ভিসের পরিচালক লিয়াকত হোসেন এই জরিমানা প্রদান করেন।

জানা গেছে- ১৩ জুন বরগুনা জেলার পাথরঘাটার কলেজ রোড এলাকার নজরুল হক সেলিমের মেয়ে বিএম কলেজের ইংরেজী বিভাগের ছাত্রী উম্মে মারজান ছোয়া (২২) শ্বাসকষ্ট রোগের বক্ষব্যাধি চিকিৎসক সিদ্দিকুর রহমানকে দেখান। তিনি মেয়েটিকে এক্সরে টেস্ট করানোর জন্য বরিশাল বেলভিউ মেডিকেল সার্ভিসেস লিমিটেডে পাঠায়। সেখানে দুইটি এক্সরে করার জন্য ৪৫০ টাকা করে নেয়া হয়। পরবর্তীতে ২৪ জুন একই টেস্ট করার জন্য মেডিনোভা ডায়াগনস্টিকে তারা গেলে সেখানে দুইটি টেস্টে ৩৫০ টাকা করে নেয়া হয়।

এছাড়াও বেলভিউ মেডিকেল সার্ভিসেসের নামে অনিয়মের বিস্তার অভিযোগ রয়েছে। প্রায়শই গ্রামগঞ্জ থেকে আসা রোগীদের বেকাদায়য় ফেলে অতিরিক্ত ফি আদায় করে গরীব রোগীদের সর্বশান্ত করে দিচ্ছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

এই ঘটনায় ২৫ জুন ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরে অভিযোগ করেন নজরুল হক সেলিম। এরপর ৩০ জুন বেলভিউ’র পরিচালক মাসুদ অভিযোগকারীকে ফোন করে হুমকি দেয় অভিযোগ দেয়ার কারনে। অভিযোগ দেয়ার পরিপ্রেক্ষিতে মঙ্গলবার শুনানীর দিনে টেস্টে অতিরিক্ত অর্থ আদায়ের বিষয়টি প্রমাণিত হলে বেলভিউ মেডিকেল সার্ভিসেসকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয় এবং সেখানে উপস্থিত প্রতিষ্ঠানটির পরিচালক লিয়াকত হোসেন জরিমানা প্রদান করেন এবং অভিযোগকারীকে হুমকির ঘটনায় ক্ষমা চান। পাশাপাশি অভিযোগকারীকে জরিমানার ২০ হাজার টাকা থেকে ৫ হাজার টাকা প্রদান করা হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর বরিশালের সহকারি পরিচালক শাহ সোইয়াব মিয়া।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here