লঞ্চ থেকে পড়ে নিখোঁজ হওয়ার সাত দিন পর মেহেদী হাসান বাবু (১৯) নামে এক কলেজছাত্রের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

 

শনিবার (১৮ জানুয়ারি) দুপুরে বরিশালের হিজলা ও মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলার মধ্যবর্তী ভাষানচর নামক এলাকায় মেঘনা নদী থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়।

 

বাবু বরিশালের উজিরপুর উপজেলার শিকারপুর মুণ্ডপাশা গ্রামের বাসিন্দা প্রবাসী আব্দুল হালিম বিশ্বাসের ছেলে। তিনি উত্তরা ট্রাস্ট কলেজের ছাত্র ছিলেন। মায়ের সঙ্গে রাজধানীর উত্তরা এলাকার একটি বাড়িতে ভাড়া থাকতেন বাবু।

 

নিহত বাবুর মামা নাজমুল হক মুন্না বলেন, গত শনিবার (১১ জানুয়ারি) মায়ের সঙ্গে ঢাকা থেকে সুরভী-৯ লঞ্চে করে উজিরপুর নানা বাড়িতে বেড়াতে যাচ্ছিল বাবু। ওইদিন দিনগত রাত ৩টার পর থেকেই নিখোঁজ হয় সে। অনেক খোঁজাখুজির পরেও তার সন্ধান পাওয়া যায়নি। সর্বশেষ শনিবার (১৮ জানুয়ারি) দুপুরে ভাষানচর এলাকায় মেঘনা নদীতে বাবুর মরদেহ ভাসতে দেখে পুলিশে খবর দেয় স্থানীয়রা।

 

তিনি আরও বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছে মেহেদীর মরদেহ শনাক্ত করেন তারা। পরে মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিক্যাল কলেজ (শেবাচিম) হাসপাতাল মর্গে নিয়ে আসা হয়।

 

হিজলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) অসীম কুমার সিকদার বলেন, মূলত জেলেরা মরদেহ নদীতে ভাসতে দেখে থানা পুলিশে অবহিত করে। পরে ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে শেবাচিম হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here