রিশাল নগরীর সদর রোডে প্রকাশ্য দিবালোকে অস্ত্র দেখিয়ে এক ডায়াগনস্টিক সেন্টারে প্রতি মাসে ২ লাখ টাকা চাঁদা দাবী করা হয়েছে। এ সময় ওই ডায়াগনস্টিক সেন্টারের ম্যানেজারকে মারধর করে পিস্তল মাথায় ঠেকিয়ে সাদা চেকে সাক্ষর আদায়ের চেস্টা সহ ইয়াবা দিয়ে পুলিশে ধরিয়ে দেওয়ার হুমকী দেওয়া হয়। একই সাথে ডায়াগনস্টিক সেন্টারের মালিকের হাত-পা কেটে নেওয়ার হুমকী দেওয়া হয়। গত শুক্রবার সকাল সাড়ে ৬টায় নগরীর সদর রোডের বেলভিউ গলিতে (দক্ষিনাঞ্চল গলি) এই ঘটনা ঘটলেও থানায় মামলা দায়ের করা হয় দুইদিন পর রবিবার রাতে।

প্রধান অভিযুক্তের নাম সৈয়দ রফিকুল ইসলাম রাজু। সে পাশ্ববর্তী বাটার গলি এলাকার মৃত সৈয়দ আব্দুল মন্নানের ছেলে এবং সদর রোডের চিহ্নিত সন্ত্রাসী হিসেবে পরিচিত। এর আগে একাধিক সন্ত্রাসী কর্মকান্ড এবং মাদকের মামলায় একাধিকবার কারাভোগ করেছেন সে।

সদর রোডের বেলভিউ গলির প্রাইম ডায়াগনস্টিকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. কামাল সরদার জানান, গত ২ যুগেরও বেশী সময় ধরে তিনি সদর রোডে ডায়াগনস্টিক সেন্টারের ব্যবসা করছেন। ব্যবসার শুরু থেকেই সন্ত্রাসী রাজু বিভিন্ন সময় তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠান থেকে চাঁদাবাজী করে আসছিলো। রোগীদের আত্মীয়-স্বজন পরিচয় দিয়ে বিভিন্ন সময় তার ডায়াগনস্টিকে পরীক্ষা নিরীক্ষা করিয়ে নামমাত্র টাকা দিয়ে বাকী টাকা আত্মসাত করে আসছিলো সে। এ কারনে তিনি গত ৩ বছর রাজুকে এড়িয়ে চলছেন।

গত শুক্রবার সকাল সাড়ে ৬টার দিকে রাজু তার কয়েকজন সহযোগী নিয়ে প্রাইম ডায়াগনস্টিকে এসে ম্যানেজার
ইকবাল হোসেন আরিফকে ডেকে বাইরে নিয়ে যায়। রাজুর সাথে ছিলো আরও ২ সহযোগী। এ সময় রাজু তার পড়নে থাকা গেঞ্জি তুলে কোমড়ে গোজা পিস্তল দেখায় এবং অপর এক সহযোগীকে ধারালো অস্ত্র বের করতে বলে। রাজু আরিফকে মারধর করে প্রতিমাসে মালিকের কাছ থেকে ২ লাখ টাকা চাঁদা এনে দিতে হুশিয়ারী দেয়। চাঁদার অগ্রীম হিসেবে একটি চেকে জোর করিয়ে সাক্ষর করিয়ে নেওয়ার চেস্টা করে ব্যর্থ হয় তারা। পরে একটি ইয়াবার প্যাকেট বের করে পুলিশে ধরিয়ে দেয়ার হুমকী দেয় রাজু। একই সাথে প্রতিষ্ঠানের প্রাইম ডায়াগনস্টিকের ব্যবস্থাপনা পরিচালকের বাসায় গিয়ে তার হাত-পা কেটে নেওয়ার হুমকী দেয় তারা।

এ ঘটনার পুরো দৃশ্য সেবা মেডিকেল সার্ভিসেস লিমিটেডের সিসি ক্যামেরায় রেকর্ড হয়।

আকস্মিক এই ঘটনায় প্রাইম ডায়াগনস্টিকের ম্যানেজার আরিফ হতবিহ্বল হয়ে যায়। এ ঘটনায় নিরাপত্তাহীনতার আশংকায় ২দিন পর গত রবিবার রাতে কোতয়ালী মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করেন প্রাইম ডাগায়নস্টিকের চেয়ারম্যান মো. মজিবুল হক।

কোতয়ালী মডেল থানার ওসি মো. নুরুল ইসলাম মামলার অভিযোগ তদন্ত করে অভিযুক্তদের গ্রেফতার সহ আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার কথা জানিয়েছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here