শামীম আহমেদ ॥ মাদকের বিরুদ্ধে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর কঠোর অবস্থানের কারণে গ্রেফতার এড়াতে বেশ কিছুদিন আত্মগোপনে ছিলো দুর্ধর্ষ মাদক বিক্রেতা সুমন মোল্লা।

হঠাৎ করে বুধবার দিবাগত রাতে মুখে মাক্স পরে একটি ইজিবাইকের মধ্যে দুইটি পেয়ারার কার্টুন নিয়ে বাড়ি ফিরছিলেন সুমন। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জেলার গৌরনদী মডেল থানা পুলিশ ওই ইজিবাইকটি আটক করে।

এসময় ইজিবাইকে যাত্রীবেশে থাকা মুখে মাক্স লাগানো ব্যক্তির মাক্স খুলে দেখা যায় দুর্ধর্ষ মাদক বিক্রেতা সুমন। তার পাশে অপর যাত্রীবেশে রয়েছে সুমনের বাবা ইদ্রিস মোল্লা। পরবর্তীতে স্থানীয়দের উপস্থিতিতে পুলিশ সুমন ও তার বাবা ইদ্রিস মোল্লাকে দিয়ে পেয়ারার কার্টুন থেকে পেয়ারা নামিয়ে দেখতে পান কার্টুনের নিচে সাজানো রয়েছে ১৬০ বোতল ফেনসিডিল।

তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করে অভিযানের নেতৃত্ব দেয়া গৌরনদী মডেল থানার ওসি মোঃ আফজাল হোসেন বলেন, উপজেলার নন্দনপট্টি এলাকার পঞ্চগ্রাম ঈদগাহ এলাকার এ অভিযানে দুই কার্টুন পেয়ারার নিচ থেকে ১৬০ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করা হয়েছে।

একইসাথে দুর্ধর্ষ মাদক বিক্রেতা সুমন মোল্লা ও তার বাবা ইদ্রিস মোল্লাকে গ্রেফতার করা হয়। এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়েরের পর বৃহস্পতিবার দুপুরে গ্রেফতারকৃতদের আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here