বরিশাল জেলার বাবুগঞ্জ উপজেলার মধ্যদিয়ে বহমান রাক্ষুসী সন্ধা নদীর ভয়াবহ ভাঙ্গনে ইতোমধ্যে বিলীন হয়ে গেছে বেশ কিছু ঘরবাড়ি, মসজিদ, আবাদি জমি ও গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা। এতে নিঃস্ব হয়ে পথে বসেছে পরিবার। নদী ভাঙ্গনে প্রতিনিয়তই বিনিদ্র রাত কাটাচ্ছেন ভাঙ্গন কবলিত পরিবারের সদস্যরা। এক সপ্তার মধ্যে পূর্ব ভুতের দিয়া গ্রামের কয়েকটি বসতঘর বেশ কিছু স্থাপনা, দোকান ঘর, মসজিদ, ফলন্ত বৃক্ষ সন্ধ্যা নদীতে বিলীন হয়ে গেছে। আজ ২৩ জুলাই বিকাল ৬ টায় ভাঙ্গন কবলিত এলাকা পরিদর্শন করেছেন জেলা প্রশাসক বরিশাল এস, এম, অজিয়র রহমান।

এসময় উপস্থিত ছিলেন ভারপ্রাপ্ত উপজেলা নির্বাহী অফিসার বাবুগঞ্জ ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) বরিশাল, নুসরাত জাহান, উপজেলা চেয়ারম্যান বাবুগঞ্জ, সরদার মোঃ খালেদ হোসেন, উপ-পরিচালক সমাজসেবা অধিদফতর বরিশাল, আল মামুন তালুকদার, বরিশাল ডিআরআরও মোঃ আবদুল লতিফ, কেদারপুর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান, নুরে আলম ব্যাপারি, সিনিয়র সহসভাপতি জেলা আওয়ামীলীগ বরিশাল, মোঃ হোসেন চৌধুরী, প্রবেশন অফিসার সমাজসেবা, সাজ্জাদ পারভেজসহ এলাকার বাসি, নদী ভাঙ্গনে ক্ষতিগ্রস্থরা উপস্থিত ছিলেন। এসময় জেলা প্রশাসক ক্ষতিগ্রস্ত ১৮ টি পরিবারকে প্রত্যেককে নগদ ১০,০০০/- হাজার টাকা করে ১,৮০,০০০/- হাজার টাকা সমাজসেবার মাধ্যমে সহায়তা করা হয়। পাশাপাশি প্রতিটি পরিবারকে ৩০ কেজি করে চাল দেবার জন্য বলেন। ক্ষতিগ্রস্তদের সব ধরনের সাহায্য সহযোগিতার আশ্বাস প্রদান করেন।নদী ভাঙ্গন প্রতিরোধে সরকারের পক্ষ থেকে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে আশ্বাস প্রদান করেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here