আদালতের নির্দেশে বরিশালের আগৈলঝাড়া বেবী হোমে আশ্রিত তিন অনাথ শিশু ফিরে গেল তাদের নিজের আপন পরিবারে। রবিবার সকালে বেবী হোমে আশ্রিত তিন শিশুকে আদালতের নির্দেশে প্রবেশন অফিসারের উপস্থিতিতে তাদের পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

সমাজসেবা অধিদপ্তরের আওতাধীন আগৈলঝাড়ায় অবস্থিত বরিশাল বিভাগীয় বেবী হোমের উপ-তত্বাবধায়ক আবুল কালাম আজাদ জানান, বরিশাল শিশু আদালতের বিচারক মো. আবু শামীম আজাদ মিস কেস নং ২৩১/১৯ এর রায়ে সাত বছরের শিশু সাইফুল ইসলামকে নিঃসস্তান দম্পত্তি বাবুল মৃধার পরিবারে হস্তান্তরের নির্দেশ দিয়েছেন।
আদালতের নির্দেশনা অনুযায়ি রবিবার সকালে বাকেরগঞ্জ উপজেলার দক্ষিন শ্যামপুর গ্রামের মৃত হাতেম আলী মৃধার ছেলে রং মিস্ত্রী বাবুল মৃধা ও তার স্ত্রী পারভীন আক্তারের কাছে হস্তান্ত করা হয়। সাইফুল ইসলামকে আগৈলঝাড়ার রথখোলা এলাকা থেকে পরিত্যাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছিল।

একই দিন বেবী হোমে আশ্রিত আগৈলঝাড়া উপজেলার রাজিহার ইউনিয়নের আহুতি বাটরা গ্রামের কাওসার সরদার (৬) ও তার ছোট ভাই আলহাজ্ব সরদার (৩)কে তাদের মা নুরুন্নাহার খানমের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

সূত্র মতে, কাওসার ও আলহাজ্বের মা মানসিক প্রতিবন্ধি ছিল। তাদের বাবা রুবেল সরদার মারা যাবার পরে নানীর কাছে তারা আশ্রয়ে ছিল। দরিদ্রতার কারনে নানী তাদের ভরণ পোষণে ব্যর্থ হয়ে বেবী হোমে আশ্রয়ের জন্য প্রদান করেন। বর্তমানে তাদের মা সুস্থ ও স্বাভাবিক হওয়ায় কাওসার ও আলহাজ্বকে নিজের কাছে নিতে চাইলে দুই সস্তানকে তার মায়ের জিম্মায় প্রদান করা হয়।

তিনটি শিশু হস্তান্তরের সময় বরিশাল জেলা প্রবেশন অফিসার সাজ্জাদ পারভেজ, বেবী হোমের উপ-তত্বাবধায়ক আবুল কালাম আজাদ, অফিস সহকারী নুরুজ্জামানসহ বেবী হোমের মাদাররা উপস্থিত ছিলেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here