আজ ১৬ ডিসেম্বর মহান বিজয় দিবস ২০১৯, বাংলাদেশ ইতিমধ্যে পার করেছে বিজয়ের ৪৮ বছর। দেশটা স্বাধীন হবার পিছনে যে ব্যক্তিটির অবদান অপরিসীম, যিনি না থাকলে হয়তো বাংলাদেশ নামক ভূখণ্ডটির জন্মই হতো না তিনি হলেন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। আজ বিজয় দিবস, জেলা প্রশাসন বরিশালের আয়োজনে যথাযথ মর্যাদায় নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে দিবসটি উদ্‌যাপন করা হয়। এ উপলক্ষে জেলা প্রশাসন বরিশাল নানাবিধ কর্মসূচি পালন করেন। আজ ১৬ ডিসেম্বর প্রত্যুষে পুলিশ লাইন বরিশাল ৩১ বার তোপধ্বনির মাধ্যমে মহান বিজয় দিবসের কার্যক্রম শুরু করা হয়। সূর্যোদয়ের সাথে সাথে শহীদ মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতি ফলকে জেলা প্রশাসক বরিশাল নেতৃত্বে জেলা প্রশাসকের কার্যালয় সংলগ্ন শহীদ মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতি ফলকে মুক্তিযোদ্ধাদের পক্ষ থেকে পুষ্পস্তবক অর্পণের মাধ্যমে মহান বিজয় দিবস ২০১৯ এর শুভ সূচনা করা হয় পরে একে একে সবাই পুষ্পস্তবক অর্পণ করে।

কীর্তনখোলা নদী সংলগ্ন ত্রিশ গোডাউন বধ্যভূমি স্মৃতিস্তম্ভে অভিমুখে পদযাত্রা। সেখানে পুষ্পস্তবক অর্পন করেন জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তানেরা মুক্তিযোদ্ধারা। পরে বিভাগীয় প্রশাসন বরিশাল, জেলা প্রশাসন, পুলিশ কমিশনার, ডিআইজি, পুলিশ সুপার, আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নসহ সরকারি-বেসরকারি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান। সেখান থেকে পদযাত্রা করে এডিসি আজিজুল ইসলাম এর কবরে ফুলদিয়ে শ্রদ্ধা জানিয়ে তার রুহের মাগফেরাত কামনা করে দোয়া মোনাজাত করা হয়। সকাল সাড়ে আটটার দিকে রিপোর্টার্স ইউনিটি বরিশালের আয়োজনে মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক প্রামাণ্য দলিল প্রদর্শনী কার্যক্রমের শুভ উদ্বোধন করেন বিভাগীয় কমিশনার বরিশালসহ অন্যান্য অতিথিবৃন্দরা উদ্বোধন শেষে মুক্তিযুদ্ধের প্রামাণ্য দলিল পরিদর্শন করেন তারা। বরিশাল বঙ্গবন্ধু উদ্যানে আনুষ্ঠানিকভাবে জাতীয় পতাকা উত্তোলন, সালাম গ্রহণ, কুচকাওয়াজ এবং শারীরিক চর্চা প্রদর্শনী অনুষ্ঠান ও ক্রীড়া অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন বিভাগীয় কমিশনার বরিশাল, মুহাম্মদ ইয়ামিন চৌধুরী।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন জেলা প্রশাসক বরিশাল, এস, এম, অজিয়র রহমান। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ডিআইজি, বাংলাদেশ পুলিশ, বরিশাল রেঞ্জ বরিশাল, মোঃ শফিকুল ইসলাম বিপিএম পিপিএম, পুলিশ কমিশনার বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশ, মোঃ শাহাবুদ্দিন খান বিপিএম (বার), পুলিশ সুপার বরিশাল, মোঃ সাইফুল ইসলাম, বিপিএম (বার), বরিশাল র‌্যাব-৮ এর অধিনায়ক আতিকা ইসলাম। আরো উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনারবৃন্দ, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক বরিশালবৃন্দ, অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনারবৃন্দ, বিভাগীয় কমিশনার বরিশাল এর সহধর্মিনী, জেলা প্রশাসক বরিশাল এর সহধর্মিনীসহ বিভিন্ন সরকারি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিরা, মুক্তিযোদ্ধারা, শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও অভিভাবক বৃন্দরা উপস্থিত ছিলেন।

দুপুর ১২ টায় লেডিস ক্লাব বরিশাল জেলা ও মহানগরীর ৪০ জন বীর মুক্তিযোদ্ধা, শহীদ মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সদস্যদের সংবর্ধনা জ্ঞাপন এবং সম্মাননা প্রদান করা হয়। পাশাপাশি প্রায় নয় শতজন মুক্তিযোদ্ধা, শহীদ মুক্তিযোদ্ধা ও তাদের পরিবারের সদস্যদের জন্য মধ্যাহ্নভোজের আয়োজন করা হয়। জাতির শান্তি, সমৃদ্ধি, ও অগ্রগতি কামনা করে স্থানীয় সকল মসজিদে এবং বিশেষ মোনাজাত এবং সকল মন্দির, গীর্জা ও অন্যান্য উপাসনালয়ে বিশেষ প্রার্থনার আয়োজন করা হয়।এদিকে সারাদিন ব্যাপি বঙ্গবন্ধু উদ্যান সংলগ্ন আনসার ও ভিডিপি কার্যালয়ে, ১৬ ডিসেম্বর মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে মুক্তিযুদ্ধের দলিল এবং রেকর্ডপত্র ও চিত্রপ্রদর্শনী চলে।দুপুর ২ টায় হাসপাতাল, কারাগার, শিশু সদন ও বিভিন্ন আশ্রয়কেন্দ্রসহ অনুরুপ প্রতিষ্ঠানসমূহে উন্নতমানের খাবার পরিবেশন করা হয়।

বিকেলে শিশুদের জন্য প্লানেট পার্ক উন্মুক্ত রাখা হয়। বিকাল তিনটায় সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে নারীদের জন্য ক্রিয়া অনুষ্ঠান, আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। বিকেল ৪ টায় বঙ্গবন্ধু উদ্যানে জেলা প্রশাসন একাদশ বনাম বীর মুক্তিযোদ্ধা সংসদ একাদশ এর মধ্যে প্রীতি ফুটবল ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়। ৫ টায় বাংলাদেশ শিশু একাডেমী ও জেলা শিল্পকলা একাডেমি বরিশালের আয়োজনে নাচ, গান, অভিনয় ও আবৃতি অনুষ্ঠিত হয়।

সন্ধ্যা ৬ টায় বঙ্গবন্ধু উদ্যানে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন, দেশের উন্নয়ন ও অগ্রগতি বিষয়ে আলোচনা সভা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানের পাশাপাশি বিজয় দিবস ২০১৯ উপলক্ষে জেলা প্রশাসন বরিশাল এর আয়োজনে বঙ্গবন্ধু উদ্যানে জমকালো সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও স্বাধীনতা কনসার্ট এর আয়োজন করা হয়েছে। কনসার্টে প্রধান আকর্ষণ ছিলেন এসময়ের জনপ্রিয় কন্ঠশিল্পী পুলক অধিকারীসহ আরো অনেকে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here