ঢাকা-পটুয়াখালী নৌরুটে আরও একটি অত্যাধুনিক যাত্রীবাহি জাহাজ সংযোজন হয়েছে। বরিশালের সুন্দরবন নেভিগেশন গ্রুপের ব্যবস্থাপনায় এমভি সুন্দরবন-১৪ নামের বিলাসবহুল জাহাজের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন হয়।

শনিবার (২২ ফেব্রুয়ারী ) শেষ বিকেলে বরিশাল নদী বন্দরের স্টিমারঘাটে দোয়া-মোনাজাতের মাধ্যমে নৌযানটির উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন সিটি মেয়র সাদিক আবদুল্লাহ।

 

কোম্পানীর চেয়ারম্যান মো. সাইদুর রহমান রিন্টুর সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে দোয়া-মোনাজাত পরিচালনা করেন নগরীর চকবাজার জামে মসজিদের খতিব মাওলানা নুরুর রহমান বেগ।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন শিক্ষা বোর্ড চেয়ারম্যান প্রফেসর মো. ইউনুস, মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি একেএম জাহাঙ্গীর, আইনজীবী সমিতির সভাপতি আফজালুল করিম, শিক্ষক নেতা অধ্যাপক মহসিন-উল ইসলাম হাবুল। এছাড়া নগরীর গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ সহ বিভিন্ন শ্রেনী-পেশার বহু মানুষ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

কোম্পানীর চেয়ারম্যান মো. সাইদুর রহমান রিন্টু জানান, বরিশাল নগরীর বেলতলায় সুন্দরবন নেভিগেশন গ্রুপের নিজস্ব শিপইয়ার্ডে অত্যাধুনিক প্রযুক্তিতে কোম্পানীর ১৪ নম্বর নৌযান এমভি সুন্দরবন-১৪ নির্মান করা হয়েছে। ২৬০ ফিট দৈর্ঘ্য এবং ৩৮ ফিট প্রস্থ বিশিস্ট এই জাহাজে প্রায় ১ হাজার যাত্রী ধারনের সক্ষমতা রয়েছে। প্রথম শ্রেনীর দক্ষ মাস্টার দিয়ে পরিচালিত লঞ্চটি সম্পূর্ন ওয়াইফাইর আওতাধীন। নিরাপদ চলাচলের জন্য লঞ্চটিতে রয়েছে হাইড্রলিক সুকান ও গিয়ার, আবহাওয়ার পূর্বাভাস জানার রাডার, ঘন কুয়াশার মধ্যে চলাচলের জন্য জিপিএস, ডুবোচর সহ নদীর তলদেশ দেখার জন্য ইকোসাউন্ডার।

 

যাত্রীদের সুবিধার্থে ৪টি ভিআইপি ও ২টি সেমি ভিআইপি, ৮টি ফ্যামিলি কেবিন, ২৮টি ডবল ও ৫৫টি সিঙ্গেল কেবিন করা হয়েছে লঞ্চে।

গতকাল বরিশাল নদী বন্দরে উদ্বোধনী অনুষ্ঠান হলেও আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারী উদ্বোধনী যাত্রায় পটুয়াখালী থেকে যাত্রী নিয়ে ঢাকার উদ্দেশ্যে ছেড়ে যাবে নতুন সংযোজন হওয়া এমভি সুন্দরবন-১৪।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here