বরিশালে রিকশাচালকের মর‌দেহ উদ্ধার হওয়ার ঘটনায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে।

শনিবার (০৮ জুন) দিনগত রাতে নিহত রিকশাচালকের স্ত্রী লিপি বেগম বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেন। এ মামলায় তিনজনের নামোল্লেখ করে ও অজ্ঞাতপরিচয় আরও তিন থেকে চারজনকে আসামি করা হয়েছে।

এদিকে মামলা দায়েরের একদিনের মধ্যেই এজাহারভুক্ত আসামি মেহেদী খান রাব্বিকে (২৫) আটক করেছেন র‌্যাব-৮ এর সদস্যরা। আটক আসামি কাউনিয়া থানাধীন টাউন স্কুলরোড এলাকার বাসিন্দা শাহজাহান খানের ছেলে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে কাউনিয়া থানার পুলিশ-পরিদর্শক (তদন্ত) গোলাম কবির বলেন, গত ৭ জুন সকালে নগরীর আমানতগঞ্জ এলাকায় নির্মাণাধীন মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্সের পার্শ্ববর্তী পুকুর পাড় থেকে পলাশপুর এলাকার ইসলামপুরের বাসিন্দা রিকশাচালক আব্দুস সালামের (৩৫) মর‌দেহ উদ্ধার করা হয়। তাকে হত্যা করা হয়েছে নাকি দুর্ঘটনায় তার মৃত্যু হয়েছে সেটা এখনও নিশ্চিত নয়। তবে তার শরীরে মারধরের আলামত পাওয়া গেছে। হয়তো হত্যার আগে তাকে মারধর করা হয়েছে। হতে পারে চুরি করতে গিয়ে মারধরের শিকার হয়েছেন নয়তো অন্য কোনো কারণে। তবে মৃত্যুর সঙ্গে ঘটনার সম্পৃক্ততা রয়েছে।

এ ঘটনায় নিহতের স্ত্রী থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। এর পরিপ্রেক্ষিতে র‌্যাব-৮ সদস্যরা অভিযান চালিয়ে এক আসামিকে আটক করেছেন।

আটক হওয়া আসামি র‌্যাবের কাছে হত্যার দায় স্বীকার করেছেন বলে পুলিশকে জানানো হয়েছে। তাছাড়া ওই আসামিকে থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন পুলিশের ওই কর্মকর্তা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here