বরিশাল নগরীতে ১২ টাকার ইনজেকশনের দাম ১ হাজার টাকা রাখায় ফার্মেসির মালিককে জরিমানা করা হয়েছে। সোমবার (১৮ মার্চ) দুপুর সাড়ে ৩টায় দিকে জেলা প্রশাসন ভ্রাম্যমাণ অভিযান পরিচালনা করে তর্কি মেডিসিন কর্নার ফার্মেসির মালিক মনিরুল ইসলামকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করে।

বরিশাল জেলা প্রশাসনের এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট জয়দেব চক্রবর্তী বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, সোমবার দুপুরে রুবেল হাওলাদার নামে একব্যক্তি তাদের কাছে লিখিত অভিযোগ দেন। তখন ড্রাগস অ্যাক্ট ১৯৪০ এর ১৮ ও ২৭ ও ভোক্তা সংরক্ষণ অধিকার আইনের ৪০ ধারায় দোকানি মনিরকে ২০ হাজার টাকা জরিমনা করা হয়েছে।

অভিযোগে বলা হয়, রুবেল হাওলাদার সোমবার সকালে বরিশাল নগরীর ইসলামিয়া হাসপাতালের সামনে তর্কি মেডিসিন কর্নার ফার্মেসিতে ইনজেকশন কিনতে যান। এ সময় ইফিড্রিল নামের ওই ইনজেকশন শহরের আর কোথায়ও পাওয়া যাচ্ছিল না। ফার্মেসি থেকে ইনজেকশনের দাম রাখা হয় ১ হাজার টাকা।

এত দাম কেন জানতে চাইলে দোকানদার মনিরুল বলেন, ‘নিলে নেন, নইলে চলে যান।’ জরুরি প্রয়োজন এবং আর কোথায়ও না পাওয়ায় তিনি অতিরিক্ত দামে সেটি কিনে নেন। পরে জানতে পারেন ইনজেকশনের দাম মাত্র ১২ টাকা। এরপর দুপুরে চিকিৎসকের পরামর্শে জেলা প্রশাসনে লিখিত অভিযোগ করেন তিনি।

 

রুবেল বলেন, ‘চিকিৎসক জরুরি ভিত্তিতে ওই ইনজেকশনটি আনতে বলা হয়। আমি অনেক দোকান ঘোরার পর ১ হাজার টাকা দিয়ে কিনে আনি। এত দেরি হওয়ার কারণ জানতে চাইলে আমি সবকিছু খুলে বলি। এ সময় চিকিৎসক জানান এই ইনজেকশনের দাম মাত্র ১২ টাকা। এরপর তারা ব্যবস্থা নেন।’

এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট জয়দেব চক্রবর্তী বলেন, বাজারে ওই ইনজেকশনের সংকট ছিল। আর এই সুযোগ নেন অসাধু ব্যবসায়ী। এতে ভোক্তা প্রতারিত ও আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here