বরিশাল মেট্রোপলিটনের কোতোয়ালি থানা পুলিশের পৃথক ৩ টি অভিযানে প্রায় ১৩ লাখ টাকা মূল্যের মদ ও ইয়াবা ট্যাবলেটসহ ৪ জনকে আটক করেছে।  এছাড়া আরো একটি অভিযানে ১০ বছরের সাজাপ্রাপ্ত ও পৃথক তিনটি মামলার তিনটি পৃথক গ্রেফতারী পরোয়ানার আসামী মাদক সম্রাজ্ঞী বিলকিছকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

শনিবার (১৪ সেপ্টেম্বর) বেলা ১১ টায় বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার কার্যালয়ের সভাকক্ষে এক সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে এসব তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করা হয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার প্রলয় চিসিম জানান, বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশ মাদক ব্যবসায়ী, সেবনকারী, বহনকারী, গডফাদার, অর্থযোগান দাতাসহ সকলকে আইনের আওতায় নিয়ে আসতে বদ্ধ পরিকর। মাদকের সাথে যে বা যারাই থাকুক না কেন সঠিক তদন্তের মাধ্যমে সকলকে আইনের আওতায় নিয়ে আসা হবে। তিনি বলেন, ধারবাহিক অভিযানে বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশ সফলতা পাচ্ছে।

গত কয়েকদিন পুর্বে ২০ হাজার পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার হয়েছে।

অভিযানের ধারবাহিকতায় শুক্রবার (১৩ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় কোতোয়ালি মডেল থানা পুলিশের একটি দল নগরের লেচুশাহ সড়কে বিসিসি’র কাউন্সিলর সাঈদ আহম্মেদ মান্নার সহযোগীতায় তার বাসার চার তলার ভাড়াটিয়া আসমা আক্তার রুবিনার বাসায় অভিযান চালানো হয়। যেখান থেকে মোট ২ হাজার ৫ শত পিস ইয়াবা ট্যাবলেটসহ নগরের চিহ্ণিত মাদক ব্যবসায়ী মাদক মামলায় জেলহাজতে থাকা রিফাতুল ইসলাম রন্টির স্ত্রী আসমা আক্তার রুবিনা ও তার সহযোগী সুমন মৃধাকে আটক করা হয়।  পাশাপাশি ইয়াবা ট্যাবলেট বিক্রিত নগদ ১ লাখ টাকাও উদ্ধার করা হয়।

 অপরদিকে একই থানা পুলিশের অপর এক অভিযানে মেডিকেল কলেজ এলাকার মাদক ব্যবসায়ী মাইদুল ইসলাম রিফাত (৩৪) কে ৫৮ পিস ইয়াবা ট্যাবেলটসহ আটক করা হয়।

পাশাপাশি অপর এক অভিযানে ১ বোতল কেরু মদসহ মোঃ খোকন মৃধা (৪০) কে আটক করা হয়।

এছাড়া আরো একটি অভিযানের মাধ্যমে ঢাকা থেকে ১০ বছরের সাজাপ্রাপ্ত ও পৃথক তিনটি মামলার তিনটি পৃথক গ্রেফতারী পরোয়ানার আসামী মাদক সম্রাজ্ঞী বিলকিছকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here