সদ্য ঘোষনা হওয়া বরিশাল জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের পূর্ণাঙ্গ কমিটি’র সাংগঠনিক কার্যক্রমের উপরে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে কেন্দ্র । জেলা বিএনপি’র নেতৃবৃন্দ’র অনুমতি এবং তাদের না জানিয়ে পুর্ণাঙ্গ কমিটি কেন্দ্রে জমা দেয়ায় বৃহস্পতিবার রাতে এই স্থগিতাদেশ দেয়া হয়েছে।
জাতীয়তাবাদী বিএনপি’র বরিশাল দক্ষিণ জেলার সভাপতি আলহাজ্ব এবায়েদুল হক চাঁন এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তবে কমিটি স্থগিতাদেশের খবরে দস্য ঘোষিত স্বেচ্ছাসেবক দলের পূর্ণাঙ্গ কমিটির নেতা-কর্মীদের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।

জেলা বিএনপি’র এই নেতা বলেন, কমিটি স্থগিতের কথা শুনেছি এবং তা সত্য। তিনি বলেন, ‘দলীয় সিদ্ধান্ত অনুযায়ী বিএনপি’র অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের কোন ইউনিট কমিটি গঠনের পূর্বে অবশ্যই অধিনস্ত স্থানীয় জেলা, উপজেলা বা মহানগর বিএনপি’র নেতৃবৃন্দর সাথে আলোচনা করে নিতে হবে। এ মর্মে স¤প্রতি কেন্দ্র থেকে আমাদের কাছে চিঠি এসেছে। যা আমরা আমাদের অধিনস্ত সহযোগী ও অঙ্গ সংগঠনগুলোকে চিঠি দিয়ে জানিয়ে দিয়েছি।

কিন্তু চিঠি দেয়ার পরেও গত ৬ অক্টোবর অনুমোদন হওয়া বরিশাল জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের ১৭১ সদস্য বিশিষ্ট পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠনের পূর্বে বরিশাল উত্তর বা দক্ষিণ জেলা বিএনপি’র কাছ থেকে কোন অনুমোদন, শুপারিশ বা তাদের অবগত করা হয়নি। এজন্য জেলা বিএনপি’র দেয়া অভিযোগের ভিত্তিতে বরিশাল জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের কমিটির কার্যক্রম পুরোপুরিভাবে স্থগিত করা হয়েছে। পরবর্তী নির্দেশ বা সিদ্ধান্ত না হওয়া পর্যন্ত এই আদেশ বহাল থাকবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

এ বিষয়ে স্বেচ্ছাসেবক দলের কেন্দ্রীয় কমিটির দপ্তর সম্পাদক রফিকুল ইসলাম বলেন, ‘বিষয়টি আলোচনায় আছে। তবে কি হবে তা কালকে (শুক্রবার) চিঠি’র মাধ্যমে জানিয়ে দেয়া হবে। এদিকে বরিশাল জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সাংগঠনিক সম্পাদক জাবের আবদুল্লাহ সাদী বলেন, ‘কমিটির কার্যক্রম অনিবার্জ কারণবশত স্থগিত হয়েছে বলে শুনেছি। তবে এ ধরনের কোন চিঠি আমরা এখনো পাইনি।

জেলা বিএনপি নেতার করা অভিযোগের বিষয়টির ব্যখ্যা দিয়ে তিনি বলেন, ‘অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের কমিটি গঠনের বিষয়ে যে চিঠির কথা বলা হচ্ছে সেটা সঠিক। তবে ওই চিঠি আমরা গত এক মাস আগে পেয়েছি। অথচ আমাদের যে পুর্ণাঙ্গ কমিটি অনুমোদন হয়েছে সেটা আরো ছয় মাস আগে কেন্দ্রে জমা দেয়া হয়। সেই কমিটিই অনুমোদন দিয়েছে কেন্দ্রীয় কমিটি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here