নগরীর ১৪নং ওয়ার্ডে চাঁদার দাবীতে প্রবাসীকে মারধরের অভিযোগ পাওয়া গেছে। অভিযোগ সূত্রে জানাযায়, বরিশাল নগরীর ১৪নং ওয়ার্ড, দক্ষিণ আলেকান্দা, বাংলাবাজার মকবুল ইঞ্জিনিয়ার লেন’র বাসিন্দা মৃত মকবুল আলী তালুকদারের পুত্র আমেরিকা প্রবাসী সাকিল আনসারির ৩টি রেইন্ট্রি গাছ আছে।

প্রতিবেশীদের দাবীতে গাছ গুলো কাটার সিদ্ধান্ত নেয় সাকিল আনসারী। সিদ্ধান্ত মোতাবেক গত ১৬ আগস্ট দুপুরে গাছ কাটার প্রস্তুতি নেয় সাকিল। শ্রমিকরা গাছ কাটতে থাকলে ওয়ার্ড কাউন্সিলর’র সচিব ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে সাকিলকে জানায় কাউন্সিলর তার সাথে কথা বলবেন।

তাৎক্ষনিক সচিব নিজ মোবাইল দিয়ে কাউন্সিলর ছাবেদকে ফোনে ধরিয়ে দেন। এসময় সাকিল হ্যালে বলার সাথে সাথেই বিপরীত দিক থেকে অকথ্য গালাগাল শুরু হয়। আর তা শুনতে হয় গাছ মালিক সাকিলকে। এসময় সাকিল সচিবের কাছে জানতে চায় কেন তাকে গালাগালি করা হল।

সচিব কোন সদোত্তর না দিয়েই ঘটনাস্থল ত্যাগ করে। কিছু সময় পরে কাউন্সিলর’র লোক হিসেবে নিজেকে পরিচয় দেয়া শাহআলম সহ ৭/৮ জন লোক এসে সাকিলকে অকথ্য গালিগালাজ ও হুমকি ধামকি প্রদান করে।

শাহআলম বাহিনী সাকিলের গাছকাটা শ্রমিকদের ভয়ভিতি প্রদর্শন করে গাছ কাটা বন্ধ করে দেয়। এসময় শাহআলম সাব জানিয়ে দেয় গাছ কাটতে হলে তাদেরকে মোটা অংকের টাকা দিতে হবে।

অন্যথায় কোন প্রকার গাছ কাটা যাবেনা। সাকিল এর প্রতিবাদ করলে তার বসত ঘরের অন্যপাশে নিয়ে কিলঘুষি ও এলোপাথারি মারধর করে শাহআলম ও তার সাঙ্গপাঙ্গরা।

এব্যপারে, বরিশাল কোতয়ালী মডেল থানায় সাকিল যোগাযোগ করলে অফিসার ইনচার্জ’র নির্দেশে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন এসআই আশুতোষ।

এব্যপারে, ১৪নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর অফিসের সচিব বলেন, ‘সাকিলদের ভাইদের জমি বন্টনের অভিযোগের প্রেক্ষিতে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে কাউন্সিল’র মহোদয়ের সাথে সাকিল’র মোবাইলে কথা বলিয়ে দেই’।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here