অনলাইন ডেস্ক : বরিশাল সরকারি ব্রজমোহন (বিএম) কলেজের বাণিজ্য বিভাগের মাস্টার্স শেষপর্বের ছাত্রী মিলি ইসলামকে (২৫) হত্যার অভিযোগে তার প্রেমিক সরকারি মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজের শিক্ষক পুলিন সরকারের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে।

মিলির মা পারভীন খানম মঙ্গলবার বরিশাল চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলাটি করেন। বিচারক মো. মারুফ আহম্মেদ মামলাটি তদন্তের জন্য পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনকে (পিবিআই) নির্দেশ দিয়েছেন।

মামলার আসামি পুলিন সরকার পটুয়াখালীর সোনাপুরা গ্রামের অনিল চন্দ্র সরকারের ছেলে। তিনি বরিশাল সরকারি মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজে সহকারী শিক্ষক পদে কর্মরত আছেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, মিলির বড় বোন নুরুন্নেছা নুপুরের মেয়ের গৃহশিক্ষক ছিলেন পুলিন সরকার। এ সুযোগে মিলির সঙ্গে পুলিনের প্রেম ও অনৈতিক সম্পর্ক গড়ে ওঠে। পুলিন ভিন্ন ধর্মের হওয়ায় এ প্রেম মেনে নেয়নি মিলির পরিবার। এ নিয়ে পারিবারিক কলহ চলছিল।

একপর্যায়ে মিলি তার পরিবারের সঙ্গে সম্পর্ক ত্যাগ করে বাড়ি থেকে চলে যান। ৩ মে মিলি ইসলাম নিজেকে বিবাহিত পরিচয় দিয়ে নগরীর কাশিপুর ফিসারি রোডের ডা. আলী আজিমের ভবনের চারতলার একটি ফ্ল্যাট ভাড়া নেন। ওই দিনই মিলি ওই ফ্লাটে ওঠেন। পরদিন ওই বাসা থেকে ফ্যানের সঙ্গে ওড়না দিয়ে পেঁচানো তার ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করা হয়। তবে তার ওই ফ্ল্যাটের দরজা ছিল খোলা।

এ ঘটনায় মিলির মা পারভীন খানম মামলায় উল্লেখ করেছেন, তার মেয়েকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করে আত্মহত্যার নাটক সাজানো হয়েছে। পুলিন সরকারই তার মেয়েকে হত্যা করেছে। তিনি তার মেয়ে হত্যার বিচার চান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here