বরিশাল শেরই বাংলা মেডিকেল কলেজ (শেবাচিম) হাসপাতালে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধিন অবস্থায় দেড় বছরের এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে বলে তার পরিবার দাবি করেছে।

মৃত তাওহীদ বরগুনা সদর উপজেলার গৌরচিন্না ইউনিয়নের লাকুরতলা গ্রামের ইসাহাক আলীর ছেলে।

শুক্রবার বিকাল সাড়ে ৫টায় তাওহীদের মৃত্যু হয় বলে তার বাবা জানান।

বরগুনা জেনারেল হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. মো. সোহরাব উদ্দিন জানান, ডেঙ্গু আক্রান্ত তাওহীদকে গত মঙ্গলবার (৩০ জুলাই) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

“পরে তার শরীরিক অবস্থার অবনতি হলে শুক্রবার দুপুরে তাকে শেবাচিম হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানে নেওয়ার দুই ঘণ্টা পর শিশুটির মৃত্যু হয়।”

তাওহীদের বাবা সোহরাব বলেন,মঙ্গলবার জ্বর নিয়ে তার ছেলেকে বরগুনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল। সেখানে রক্ত পরীক্ষায় তার ডেঙ্গু ধরা পড়ে।

কিন্তু শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় শুক্রবার বেলা ৩টার দিকে তাকে বরিশাল শেরে-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

সেখানেও ডেঙ্গু পরীক্ষার জন্য রক্ত নেওয়া হয়। তবে টেস্টের রেজাল্ট হাতে পাওয়ার আগেই তার ছেলের মৃত্যু হয় বলে জানান সোহরাব।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে শেবাচিম হাসপাতালের পরিচালক বাকির হোসেন বলেন, “গত পাঁচদিন আগে তার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন দুইজন ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগীর মৃত্যু হয়েছে। কিন্তু এরপর ডেঙ্গুতে আক্রান্ত আর কারও মৃত্যু হয়নি।”

তাওহীদের লাশ সকালে লাকুরতলা তার গ্রামের বাড়িতে পারিবারিক কবরস্থানে করা হয়েছে বলে বরগুনার জেলা প্রশাসক মোস্তাইন বিল্লাহ জানান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here