জাতীয় পতাকা, বেলুন, ফেস্টুন আর শান্তির প্রতীক পায়রা উড়িয়ে পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (পবিপ্রবি) ১৯তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন করা হয়েছে।

সোমবার (৮ জুলাই) সকালে জাতীয় ও বিশ্ববিদ্যালয় পতাকা উত্তোলনের মাধ্যমে বর্ণাঢ্য আয়োজনের মধ্যদিয়ে নানা কর্মসূচির আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন পবিপ্রবি’র উপাচার্য প্রফেসর ড. মো: হারুনর রশীদ।

প্রো-ভিসি প্রফেসর মোহাম্মদ আলী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন। কর্মসূচির শুরুতে প্রশাসনিক ভবনের সামনে বঙ্গবন্ধুর আবক্ষ ভাস্কর্যে (প্রতিকৃতিতে) পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়।

পরে প্রশাসনিক ভবনের সামনে থেকে একটি বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা বের হয়ে ক্যাম্পাসের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে সংক্ষিপ্ত বক্তব্য প্রদান করেন পবিপ্রবি’র উপাচার্য প্রফেসর ড. মো: হারুনর রশীদ।

প্রো-ভিসি প্রফেসর মোহাম্মদ আলী, আয়োজক কমিটির আহবায়ক প্রফেসর ড. আবুল কাশেম চৌধুরী। এসময় বিশ্ব-বিদ্যালয়ের শিক্ষক কর্মকর্তা,ছাত্রছাত্রী ও কর্মচারীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, ২০০০ সালের ৮ জুলাই পটুয়াখালী কৃষি কলেজের অবকাঠামোতেই পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিত্তি প্রস্থর স্থাপন ও উদ্বোধণ করেন তদানীন্তন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি ১৯৯৭ সালের ১৫ ই মার্চ পটুয়াখালীর জনসভায় পটুয়াখালী কৃষি কলেজকে পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে উন্নীত করার ঘোষনা দেন। ২০০১ সালের ১২ জুলাই বাংলাদেশ জাতীয় সংসদে এতদ্সংক্রান্ত আইন গৃহীত হলে ২০০২ সালের ২৬ ফেব্রুয়ারি সরকারি প্রজ্ঞাপনের মাধ্যমে পূর্নাঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে বাস্তব রূপ লাভ করে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here