পটুয়াখালীর বাউফলের কালিশুরী ইউনিয়নের ছিটকা গ্রামে সংবাদ প্রকাশ হতে পারে ধারনা করে এক সাংবাদিককে পিটিয়ে গুরুতর জখম করেছে সন্ত্রাসীরা। গত বুধবার রাত নয়টার দিকে এ ঘটনা ঘটেছে। গুরুতর জখম হওয়া ওই সাংবাদিককে স্থানীয়রা উদ্ধার করে বুধবার রাতেই বাউফল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেছেন।

এব্যপারে বাউফল থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, কালিশুরী ইউনিয়নের ছিটকা গ্রামের মিহির কান্ত কবিরাজের ছেলে মিল্টন কবিরাজ বরিশাল থেকে প্রকাশিত দৈনিক বরিশালের কণ্ঠ পত্রিকার স্টাফ রিপোর্টার। বুধবার রাত ৯ টার দিকে সে বরিশাল থেকে গ্রামের বাড়ি ছিটকায় আসার পথে মাতব্বর বাজারের পশ্চিম পাশে বিমলের চায়ের দোকানের কাছে এলে পূর্ব থেকে ওৎ পেতে থাকা দিপংকর, রাশেল, শুভ ও হ্রদয় সহ প্রায় ১০/১২ জনের একটি সংঘবদ্ধ দল তার ওপর আক্রমণ করে।

এসময় তারা মিল্টনকে এলাপাতরি কিল ঘুষি এবং লোহার রড দিয়ে পিটিয়ে গুরতর জখম করে এবং তার সাথে থাকা টাকাপয়সা সহ অন্যান্য জিনিষপত্র নিয়ে যায়। ঘটনার সময় মিল্টনের ডাকচিৎকারে এলাকার লোকজন এগিয়ে এলে দুর্বত্তরা পালিয়ে যায়।

এরপর স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে বাউফল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করান। স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, মিল্টন অনেক দিন ধরেই সংবাদিকতা পেষায় থাকার কারনে, এলাকায় সন্ত্রাসীরা বিভিন্ন রকম সন্ত্রাসী কার্যক্রম চালালে তার সংবাদ প্রকাশ হতে পারে, এবং এ ধরনের কর্ম কান্ড করলে প্রশাসনকে জানানো হতে পারে ধারনা করে । এর জের ধরেই এমন ঘটনা ঘটেছে বলে জানা গেছে।

এব্যাপারে মিল্টন কবিরাজ বুধবার রাতেই বাউফল থানায় লিখিত একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন। বাউফল থানার ওসি(তদন্ত) মাকসুদ মুরাদ জানান, অভিযোগ পেয়েছি। বিষয়টি তদন্ত করা হচ্ছে। এব্যপারে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here