বরিশাল জেলার বাবুগঞ্জ উপজেলার মধ্যদিয়ে বহমান রাক্ষুসী সন্ধা নদীর ভয়াবহ ভাঙ্গনে ইতোমধ্যে বিলীন হয়ে গেছে নদী তীরবর্তী শত শত ঘরবাড়ি, আবাদি জমি ও গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা। এতে নিঃস্ব হয়ে পথে বসেছে শত শত পরিবার। নদী ভাঙ্গনে প্রতিনিয়তই বিনিদ্র রাত কাটাচ্ছেন ভাঙ্গন কবলিত পরিবারের সদস্যরা। গতকাল পূর্ব ভুতের দিয়া গ্রামের কয়েকটি বসতঘর সন্ধ্যা নদীতে বিলীন হয়ে যায়। পাশাপাশি বেশ কিছু স্থাপনা, দোকান ঘরসহ ফলন্ত বৃক্ষ। এছাড়া ভাঙ্গন ঝুঁকিতে রয়েছে একটি মসজিদ। আজ ১৮ জুলাই বিকাল ৬ টাশ ভাঙ্গন কবলিত এলাকা পরিদর্শন করেছেন ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক বরিশাল মোঃ শহিদুল ইসলাম। এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন ভারপ্রাপ্ত উপজেলা নির্বাহী অফিসার বাবুগঞ্জ ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) বরিশাল, নুসরাত জাহান, বরিশাল ডিআরআরও মোঃ আবদুল লতিফ, কেদারপুর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান, নুরে আলম ব্যাপারি, সিনিয়র সহসভাপতি জেলা আওয়ামীলীগ বরিশাল, মোঃ হোসেন চৌধুরী, পিআইও বাবুগঞ্জ, আরিফুর রহমানসহ এলাকার বাসিন্দারা উপস্থিত ছিলেন। এসময় ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের মাঝে খাবার সামগ্রিক বিতরণ করেন। এবং তাদের সব ধরনের সাহায্য সহযোগিতার আশ্বাস প্রদান করেন। পাশাপাশি নদী ভাঙ্গন প্রতিরোধে সরকারের পক্ষ থেকে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। স্থানীয়দের দাবি অবৈধভাবে বালু উত্তোলন বন্ধ করে অচিরেই ভাঙ্গন কবলিত এলকায় প্রতিরোধে কাজ শুরু না করলে মানচিত্র থেকে হারিয়ে যাবে বাবুগঞ্জ উপজেলার নদী তীরবর্তী অসংখ্য গ্রাম।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here