বরিশাল সিটি কর্পোরেশনের (বিসিসি) প্যানেল মেয়র নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টায় নগরভবনের তৃতীয় তলায় এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়।

প্যানেল মেয়রের তিনটি পদের মধ্যে পুরুষ পদে দুইজন বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন। একমাত্র নারী প্যানেল মেয়র পদে একাধিক প্রার্থী থাকায় এ পদে নির্বাচনের মাধ্যমে বিজয়ী হয়েছেন সংরক্ষিত কাউন্সিলর আয়েশা তৌহিদ লুনা। তিনি গত বছরের জুলাই মাসে বরিশাল সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন চলাকালে বিএনপি থেকে আওয়ামী লীগে যোগ দেন। যোগ দানের আগে বরিশাল মহানগর বিএনপির মহিলা বিষয়ক সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করতেন আয়েশা তৌহিদ লুনা।

বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত দুজন হলেন- ১ নম্বর প্যানেল মেয়র পদে ৯ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর গাজী নঈমুল ইসলাম লিটু ও ৭ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর রফিকুল ইসলাম খোকন।

বিসিসি সূত্রে জানা গেছে, পুরুষ দুটি প্যানেল মেয়র পদে গাজী নঈমুল ইসলাম লিটু ও রফিকুল ইসলাম খোকন একমাত্র প্রার্থী হওয়ায় তাদের বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় বিজয়ী ঘোষণা করা হয়। সংরক্ষিত প্যানেল মেয়র পদের জন্য পাঁচজন নারী কাউন্সিলর প্রার্থী হন। তার মধ্যে আয়েশা তৌহিদ লুনা সর্বোচ্চ ২৩ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন। অপর প্রার্থীদের মধ্যে কোহিনুর বেগম ৯ ভোট, রেশমি বেগম ৩ ভোট, সালমা আক্তার শিলা ৩ ও গায়েত্রী বিশ্বাস পাখি ১ ভোট করে পেয়েছেন। মোট ৪০ জন কাউন্সিলেরর মধ্যে একমাত্র ৯ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর হারুন অর রশিদ ভোট প্রদানে অনুপস্থিত ছিলেন। নির্বাচন পরিচালনা করেন বিসিসির সচিব মো. ইসরাইল হোসেন।

প্রসঙ্গত, ২০১৮ সালের ৩০ জুলাই বরিশাল সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। ২২ অক্টোবর প্রধানমন্ত্রী গণভবনে মেয়র ও কাউন্সিলরদের শপথ বাক্য পাঠ করান এবং ২৩ অক্টোবর মেয়রসহ কাউন্সিলররা দায়িত্ব গ্রহণ করেন। নিয়ম অনুযায়ী প্রথম সভা অনুষ্ঠিত হওয়ার পরবর্তী একমাসের মধ্যে প্যানেল মেয়র নির্বাচন সম্পন্ন করতে হয়। কিন্ত বিসিসির প্যানেল মেয়র নির্বাচন সম্পন্ন হলো প্রায় এক বছর পর।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here