লবণের দাম বেড়ে যাচ্ছে এমন গুজব ছড়িয়ে পড়েছে ভোলা শহরজুড়ে। এমন খবরে ক্রেতারা হুমড়ি খেয়ে পড়েন খুচরা ও পাইকারি দোকানগুলোতে। বাড়তি চাপে নিমিষেই ফুরিয়ে যায় শহরের বিভিন্ন দোকানের লবণের মজুদ। আবার অনেক ব্যবসায়ী বেশি দামে বিক্রির জন্য লবণ মজুদ করে রাখেন।

প্রশাসন বলছে, লবণের দাম বৃদ্ধির খবর পুরোটাই গুজব। কেউ উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে এই গুজব ছড়াতে পারে।

ব্যবসায়ীরাও জানিয়েছেন, লবণের চাহিদা মাফিক সরবরাহ রয়েছে। শিগগিরই দাম বাড়ার শঙ্কা নেই। তবে ব্যবসায়ীরা এমনটি দাবি করলেও মঙ্গলবার (১৯ নভেম্বর) সকাল থেকে অনেক দোকানে বাড়তি দামে লবণ বিক্রির অভিযোগ পাওয়া গেছে।

বুধবার (২০ নভেম্বর) দাম আরও কয়েকগুণ বাড়তে পারে-এই আশঙ্কায় অনেকে লবণ কিনে রাখছেন। যার ফলে অনেক দোকানে দেখা দিয়েছে সংকট। আজকে (মঙ্গলবার) বিক্রি না করে বুধবার বেশি দামে বিক্রি করবেন- এই আশায় দোকানিরাও ইতোমধ্যে তৈরি করে ফেলেছেন কৃত্রিম সংকট।

সকাল থেকে ভোলা শহরসহ জেলা ও উপজেলার বিভিন্ন স্থানে ঘুরে দেখা গেছে, লবণ কেনার জন্য হুমড়ি খেয়ে পড়ছেন ক্রেতারা। বেশিরভাগ মুদি দোকানেরই মজুদ ফুরিয়ে গেছে। দোকানে লবণ না পেয়ে ক্রেতারা আক্রমণাত্মক আচরণ করতেও দেখা গেছে।

ক্রেতাদের দাবি, লবণের দাম বাড়তে যাচ্ছে এমন খবর শুনেছেন। তাই লবণ কিনতে এসেছেন তারা। তবে কোথায় এমন সংবাদ শুনেছেন এ কথা কেউ বলতে পারেননি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here