ভোলায় আমড়া পাড়ার সন্দেহে বিবি কুলসুম নামের ৬ষ্ঠ শ্রেণীর এক ছাত্রীকে স্কুল থেকে জোরপূর্বক ধরে নিয়ে পিটিয়ে পিঠের মেরুদণ্ড ভেঙ্গে দিলো স্থানীয় প্রভাবশালী তোফায়েল মাষ্টারের ভাই মিন্টু ফরাজি। মঙ্গলবার (২৫ জুন) দুপুর দেড়টার সময় সদর উপজেলার রাজাপুর ইউনিয়নের শান্তিরহাট ৯নং ওয়ার্ড এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। বর্তমানে শিশু কুলসুম গুরুত্বর আহত অবস্থায় ভোলা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

আহত কুলসুমের পিতা আঃ মালেক ফরাজী জানায়, রাজাপুর ইউনিয়নের শান্তিরহাট হাই স্কুলের প্রধান শিক্ষক মোঃ তোফায়েল আহমেদের ভাই মিন্টু ফরাজীর ঘেরের আমড়া গাছ থেকে কে বা কারা আমড়া পেয়ে নিয়ে যায়।

মিন্টু ঘেরে গিয়ে পায়ের ছাপ দেখে সন্দেহজনকভাবে ওই এলাকার বাসিন্দা মোঃ আঃ মালেক ফরাজীর মেয়ে শান্তিরহাট হাই স্কুলের ৬ষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্রী বিবি কুলসুককে বাড়ি সংলগ্ন প্রাইমারী স্কুলের সামনে থেকে ধরে নিয়ে যায়। মিন্টু তার ঘেরে নিয়ে কুলসুমের পায়ের ছাপ মিলিয়ে সেখানে তাকে লাঠি দিয়ে এলোপাথারী মারধর করে। পুনরায় কুলসুমকে প্রাইমারী স্কুলের সামনে এনে শিক্ষার্থীদের সামনে আবারও এলোপাথারী মারধর করতে থাকে। খবর পেয়ে কুলসুমের মা মেহের নিগার এগিয়ে আসলে তাকেও মারধর করে প্রভাবশালী মিন্টু। পরে তাকে ছাত্র-ছাত্রীরা উদ্ধার করে প্রাথমিক চিকিৎসার পর ভোলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। বর্তমানে ৬ষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্রী কুলসুমের অবস্থা আশঙ্কাজনক। তবে আমড়া পারার ঘটনার সময় কুলসুম স্কুলে পরীক্ষা দিচ্ছিলো বলে তার পরিবার জানান।

এ ঘটনার পর অভিযুক্ত মিন্টু ফরাজীর ভাই শান্তিরহাট হাই স্কুলের প্রধান শিক্ষক মোঃ তোফায়েল আহমেদ তারই স্কুলের শিক্ষার্থী বিবি কুলসুমে দেখতে হাসপাতালে আসেন। সুষ্ঠু বিচার করে দিবেন এই আশ্বাস দিয়ে মামলা মোকাদ্দমা না করার জন্য কুলসুমের পরিবারকে অনুরোধ করেন।

এ ঘটনার পর থেকে স্থানীয় প্রভাবশালীরা ঘটনাটি স্থানীয়ভাবে ধামাচাপা দেওয়ার জন্য কুলসুমের পরিবারকে বিভিন্নভাবে চাপ প্রয়োগ করে আসছে। এ বিষয়ে মামলা মোকাদ্দমা না করার জন্য বিভিন্নভাবে কুলসুমের পিতা আঃ মালেক ফরাজীকে হুমকি ধামকি দিচ্ছে প্রভাবশালী মিন্টু ও তার পরিবারের লোকজন।
তবে প্রশাসনের কাছে এ ঘটনায় সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে অভিযুক্ত মিন্টুর উপযুক্ত বিচার দাবী করছেন কুলসুমের বাবা আঃ মালেক ফরাজী।

এ বাপারে বাল্যবিয়ে ও শিশু নির্যাতন প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি এ্যাডভোকেট সাহাদাত শাহিন বলেন, ঘটনাটি খুবই দুঃখজনক। আমাদের কমিটির পক্ষ থেকে এ ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই। ৬ষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্রী বিবি কুলসুমের উপর হামলাকীদেরকে অবিলম্বে গ্রেফতার করে আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবী করছি। যাতে আর কেউ এ ধরনের ঘটনা না ঘটাতে পারে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here