বরিশাল সিটি কর্পোরেশনের মেয়র সেনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহ বলেছেন, যারা মুজিবীয় আদর্শে বিশ্বাসী তারাই এ দেশে মানবতার সেবায় নিয়োজিত থাকেন। তাইতো স্বাধীনতার স্বপক্ষের তরুন সমাজ আত্ম মানবতার সেবায় স্বেচ্ছায় শ্রুম দিয়ে যাচ্ছেন।

আজ সোমবার দুপুর দেরটায় শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজে স্বেচ্ছাসেবী প্রতিষ্ঠান ‘বঙ্গবন্ধু ক্লাব’র উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের আলোচনা সভায় বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, ‘রক্ত দিয়ে এনেছি স্বাধীনতা, রক্ত দিয়েই বাঁচাবো মানবতা” এর মূলমন্ত্র নিয়ে বরিশালেই আজ প্রথম অভিষেক হলো ‘বঙ্গবন্ধু ক্লাব’র। হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙ্গলী জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এদেশের মানুষের অধিকার আদায় করতে সক্ষম হয়েছে। তাই দেশের এই মহান ব্যক্তির আদর্শের বিশ্বাসী ও স্বাধীনতার স্বপক্ষের মেডিকেল কলেজ শিক্ষার্থীদের নিয়ে ‘বঙ্গবন্ধু ক্লাব’ প্রতিষ্ঠা করার স্বপ্ন আজ বাস্তাবায়িত হয়েছে। অচিরেই বঙ্গবন্ধুর নামের এই ক্লাবটির কার্যক্রম ছড়িয়ে পড়বে দেশ জুড়ে।

শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ডাঃ মোঃ বাকির হোসেন’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বক্তব্য রাখেন, বরিশাল বিভাগীয় কমিশনার মোঃ ইয়ামিন চৌধুরী, বিশ্ব বিদ্যালয়ের ভিসি (চ.দ) ড. একে এম মাহাবুব হাসান, শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডাঃ সৈয়দ মাকসুমুল হক, সাবেক অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডাঃ ভাস্কর সাহা, জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার শেখ কুতুব উদ্দিন আহম্মেদ, বরিশাল শিক্ষা বোর্ড চেয়ারম্যান প্রফেসর মোঃ ইউনুস, বিএম কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক শফিকুর রহমান সিকদার, মেট্রো পলিটন পুলিশের উপ-পুলিশ কর্মিশনার হাবিবুর রহমান খান, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এ্যাড. তালুকদার মোহাম্মাদ ইউনুস, মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এ্যাড. একেএম জাহাঙ্গির, বাংলাদেশ মেডিকেল এ্যাসোসিয়েশন (বিএমএ) জেলা সভাপতি ডাঃ মোঃ ইসতিয়াক হোসেন, ডাঃ মাহাবুব মোর্শেদ রানা, শেবাচিম হাসপাতালের আউটডোর ডক্তরস এ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ডাঃ সৌরভ সুতার ও ডাঃ ফয়সাল হাসবুন প্রমুখ।

এর আগে বেলা ১২ টায় বেলুন ও পায়রা উড়িয়ে ক্লাবটির উদ্বোধন করেন বরিশালের সিটি মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহ। তিনি এই প্রতিষ্ঠানের প্রধান উপদেষ্টা ও প্রধান পৃষ্ঠপোষক। বঙ্গবন্ধু ক্লাব’র গঠন তন্ত্র অনুযায়ী কেন্দ্রীয় সদর দপ্তর স্থাপন না হওয়া পর্যন্ত শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ ইউনিট কেন্দ্রীয় সদর দপ্তর হিসেবে পরিচালিত হবে।

মুজিবীয় আদর্শে বিশ্বাসী স্বাধীনতার স্বপক্ষের সকল মেডিকেল ও ডেন্টাল কলেজের ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য সদস্য পদ উন্মুক্ত করা হয়েছে। প্রাথমিক ভাবে ক্লাব পরিচালনার জন্য একজন আহ্বায়ক, ৪ জন যুগ্ম আহ্বায়ক, ৪ জন প্রোগ্রাম সমন্বয়ক, ২ জন কোষাধ্যক্ষ মনোনিত করা হয়েছে। স্বেচ্ছায় রক্ত দান, নিরাপদ রক্ত সংগ্রহ, বিনা মূল্যে ব্লাড গ্রুপিং ও ঔষধ বিতরণ, হেলথ্ ক্যাম্প, থ্যালাসেমিয়া প্রজেক্ট, প্রতিবন্ধি, এতিম ও পথশিশুদের জন্য দরিদ্র তহবিল গঠন, বস্ত্র ও অর্থ প্রদান, টিকাদান, বৃক্ষরোপনসহ সকল মানবতা সেবায়ই এই প্রতিষ্ঠানের কার্যক্রম।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here