বরিশাল নগরীর কাশিপুরের ইছাকাঠী এলাকায় তুচ্ছ ঘটনার জের ধরে শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ (শেবাচিম) হাসপাতালের সাবেক শিশু বিভাগের চিকিৎসক গোলাম মোস্তফার স্ত্রী ও মেয়েকে কুপিয়ে জখম করেছে সন্ত্রাসীরা।

সোমবার বিকেল ৩টায় নিজ বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

আহতরা হলোঃ ডা. গোলাম মোস্তফার স্ত্রী মমতাজ বেগম ও মেয়ে সাকি আক্তার। বর্তমানে তারা শেবাচিম হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

আহত সূত্র জানায়, দীর্ঘদিন ধরে ডা. গোলাম মোস্তফা ও তার পরিবারের সাথে একই এলাকার আঃ রবের ছেলে আঃ রাজ্জাক ও তার পরিবারের পূর্ব বিরোধ চলে আসছে। আঃ রাজ্জাক ও তার পরিবারের লোকজন তুচ্ছ বিষয় নিয়ে ডা. গোলাম মোস্তফার উপর অন্যায় অত্যাচার চালিয়ে আসছে। আঃ রাজ্জাক ইচ্ছাকৃতভাবে ডা. গোলাম মোস্তফার গাছের ফসল নষ্ট ও কেটে নিয়ে যায়। এছাড়া আঃ রাজ্জাক ও তার ছেলে মনির হোসেন জোরপূবর্ক ডা. গোলাম মোস্তফার জমি দখল করার তাদের উৎখাত করার চেষ্টা চালায়। সেটা না পেরে তুচ্ছ বিষয় নিয়ে ডা. গোলাম মোস্তফার ও তার পরিবারের সাথে রাজ্জাক ও ছেলে মনির ঝগড়া-বিবাদের লিপ্ত হয়। এর প্রতিবাদ করলে রাজ্জাক ও ছেলে মনির হত্যা ও খুন জখমের হুমকি দেয়। এরই ধারাবাহিকতায় ঘটনার সোমবার আঃ রাজ্জাক ও ছেলে মনির, স্ত্রী সাহিদা বেগম, মেয়ে মিষ্টিসহ আরো কয়েকজন অতর্কিতভাবে হামলা চালিয়ে ডা. গোলাম মোস্তফার স্ত্রী মমতাজ বেগম ও মেয়ে সাকি আক্তারকে কুপিয়ে জখম করে।

স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে তাৎক্ষনিক শেবাচিম হাসপাতালে ভর্তি করেন।

এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে স্বজনরা জানান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here