নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ উপজেলায় সাহায্য দেয়ার জন্য ডেকে নিয়ে এক নারী ভিক্ষুককে ধর্ষণ করা হয়েছে। সোমবার (১১ নভেম্বর) সকালে উপজেলার কাঁচপুর ইউনিয়নের একটি কারখানার পাশে এ ঘটনা ঘটে।

ঘটনার পর ধর্ষণে অভিযুক্ত হান্নানুর রহমান রতন (৫৭) পালিয়ে যান। এ ঘটনায় সোনারগাঁ থানায় মামলা করেছেন ধর্ষণের শিকার নারী ভিক্ষুক।

ওই নারীর বরাত দিয়ে সোনারগাঁ থানা পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) সৈয়দ আজিজুল হক বলেন, কাঁচপুরের এক দিনমজুরের স্ত্রী দুই সন্তানের জননী ৪-৫ মাস আগে ব্রেন স্ট্রোক করে গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েন। উন্নত চিকিৎসা করানোর সামর্থ্য না থাকায় ভিক্ষা করে চিকিৎসা খরচ চালিয়ে আসছিলেন ওই নারী।

প্রতিদিনের মতো সোমবার সকালে ভিক্ষা করতে বের হলে ওই নারীকে সাহায্য দেয়ার জন্য ডেকে নিয়ে যান হান্নানুর রহমান রতন। পরে উপজেলার কাঁচপুর ইউনিয়নের একটি কারখানার পাশে রতনের অফিসের তিনতলার কক্ষে ওই নারীকে ধর্ষণ করা হয়। ওই নারীকে ধর্ষণ শেষে হুমকি দিয়ে তাড়িয়ে দেন রতন। অসুস্থ অবস্থায় কাঁচপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোশারফ ওমরের কাছে গিয়ে বিষয়টি জানান ওই নারী। পরে চেয়ারম্যান বিষয়টি পুলিশকে জানান।

এসআই সৈয়দ আজিজুল হক আরও বলেন, প্রাথমিকভাবে ওই নারীকে ধর্ষণের আলামত পাওয়া গেছে। ঘটনার পর থেকে ধর্ষক রতন এলাকা ছেড়ে পালিয়ে গেছেন। তাকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here