দেশে দুই কোটি নারী, পুরুষ ও শিশু বিভিন্ন ধরনের কিডনি রোগে আক্রান্ত। আক্রান্তদের মধ্যে প্রতি বছর গড়ে ৩৫-৪০ হাজার রোগী কিডনি বিকল হয়ে মারা যান। কিডনি বিকল রোগীদের নিয়মিত ডায়ালাইসিস কিংবা কিডনি প্রতিস্থাপনের মাধ্যমে বেঁচে থাকতে হয়।

ডায়ালাইসিস ব্যয়বহুল ও কিডনি প্রতিস্থাপনে আইনি জটিলতায় ডোনারপ্রাপ্তি সংকটে শতকরা ৮০ ভাগ কিডনি বিকল রোগীকে সুচিকিৎসার অভাবে মরতে হচ্ছে।

সরকারি-বেসরকারি পর্যায়ে বিশেষায়িত কিডনি হাসপাতাল, প্রশিক্ষিত চিকিৎসক, নার্স ও সহযোগী কর্মচারী এবং অত্যাধুনিক ডায়ালাইসিস ইউনিটের অভাবে বহু কিডনি রোগী প্রতিবেশী দেশ ভারতে পাড়ি জমাচ্ছেন।

তবে আশার খবর হলো, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে দেশের প্রতিটি জেলায় অর্থাৎ ৬৪ জেলায় ১০ শয্যা করে একটি বিশেষায়িত কিডনি ডায়ালাইসিস ইউনিট খোলার চেষ্টা চলছে। এছাড়া কিডনি রোগ আগাম প্রতিরোধে দেশের ১৬ হাজার কমিউনিটি ক্লিনিককে কাজে লাগিয়ে রোগীদের রক্তসহ একাধিক পরীক্ষা বিনামূল্যে করে কিডনি ঝুঁকি শনাক্তের চিন্তাভাবনা করছে সরকার।

বৃহস্পতিবার বিশ্ব কিডনি দিবস। এ বছর দিবসটির প্রতিপাদ্য ‘সুস্থ কিডনি সবার জন্য সর্বত্র’। দিবসটি উপলক্ষে বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতাল দিনব্যাপী বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা, আলোচনা সভা, বিনামূল্যে কিডনি পরীক্ষাসহ বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করে।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের মিল্টন হলে বাংলাদেশ রেনাল অ্যাসোসিয়েশন, কিডনি ফাউন্ডেশন অব বাংলাদেশ ও কিডনি অ্যাওয়ারনেস অ্যান্ড মনিটরিং সোসাইটির (ক্যাম্পাস) উদ্যোগে এক সেমিনার অনুষ্ঠিত হবে।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান।

এছাড়া বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) ভিসি অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া, বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনের (বিএমএ) সভাপতি ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন ও খ্যাতনামা কিডনি বিশেষজ্ঞরা উপস্থিত থাকবেন।

বেসরকারি ইনসাফ বারাকাহ কিডনি অ্যান্ড জেনারেল হাসপাতালে বুধবার থেকে মাসব্যাপী কর্মসূচির অংশ হিসেবে মাত্র এক হাজার টাকায় হেলথ চেকআপের (স্বাস্থ্য পরীক্ষা) সুযোগ দিচ্ছে। হেলথ চেকআপের আওতায় আল্ট্রাসনোগ্রাম, ইসিজি, সিরাম ক্রিয়েটিনিন, সিবিসি, আরবিএস ও ইউএনআরই পরীক্ষার সুযোগ থাকবে। এছাড়া প্রতিদিন বেলা ৩টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত বিনামূল্যে চিকিৎসা পরামর্শ দেয়া হবে।

১২ মার্চ এক সংবাদ সম্মেলনে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানায়, ক্যাম্পে রেজিস্ট্রেশনভুক্ত রোগীদের কিডনি সম্পর্কিত সিরাম ক্রিয়েটিনিন, ইউএনআরই পরীক্ষা ও ডেন্টাল চেকআপ বিনামূল্যে করা হবে। বিভিন্ন অপারেশনের শতকরা ২৫ ভাগ, পরীক্ষা-নিরীক্ষায় ৫০ ভাগ ছাড় দেয়া হবে এবং ৩০ হাজার টাকা প্যাকেজে কিডনির পাথর অপারেশন এবং ২২ হাজার টাকায় প্রোস্টেট অপারেশন করা হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here