গাজীপুর সিটি করপোরেশনের পূবাইল থানায় সেহরি খেয়েই ফ্যানের সঙ্গে ওড়না পেঁচিয়ে ফাঁস দিয়ে সিপা (২০) নামে এক গৃহবধূ আত্মহত্যা করেছেন।

রমজানের প্রথম দিন মঙ্গলবার ভোরে পূবাইল থানার হাড়িবাড়ির টেক এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত সিপার বাড়ি বরিশাল। সে গার্মেন্টসে কাজ করে। এক বছর আগে একই এলাকার মনোহরী দোকানদার আজিজুল ভূঁইয়ার ছেলে হাসানের (২৫) সঙ্গে ভালোবেসে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন।

হাসানের চাচী জানায়, বিয়ের পর থেকেই বিভিন্ন বিষয়ে তাদের মধ্যে ঝগড়া-বিবাদ চলে আসছিল। ২-৩ দিন আগেও নাকি তার স্বামী হাসান তাকে মারধর করেছিল। প্রথম রমজানের সেহরি খেয়ে সবাই যখন ঘুমিয়ে ছিল তখন সিপা সিলিং ফ্যানের সঙ্গে ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করে।

পাশের রুমের ভারাটিয়ারা টের পেয়ে হাসানকে খবর দিলে জীবিতভেবে টঙ্গী কেথারসিস হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক সিপাকে মৃত ঘোষণা করেন।

বাড়ির মালিক খন্দকার হাসান পুলিশে খবর দিলে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করে।

এ বিষয়ে পূবাইল থানার ওসি নাজমুল হক ভুঁইয়া জানান, ঝুলন্ত লাশ নিজেরা নিচে নামানোর জন্য সন্দেহ হয়, তাই মর্গে পাঠানো হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here